প্রধান বিচারপতির পদত্যাগে সরকারের হাত নেই : কাদের

নিউজ ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধান বিচারপতি ছুটি নিয়ে বিদেশে গিয়ে পদত্যাগ করেছেন। এখানে সরকারের কোনো হাত নেই।

তিনি সিঙ্গাপুর থেকে পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন। সিঙ্গাপুরে তো আমাদের কেউ নেই। গতকাল বিকালে গাজীপুরের ভাওয়াল সরকারি কলেজ মাঠে আওয়ামী লীগের নতুন সদস্য সংগ্রহ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি গত সাড়ে ৮ বছরে সাড়ে ৮ দিনও রাস্তায় নামতে পারেনি। বিএনপি আন্দোলন ডেকে ঘরে এসির মধ্যে বসে টিভিতে হিন্দি সিরিয়াল দেখে। আর মোবাইলে খবর নেয় পুলিশের অবস্থান কী।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকলে জনগণ পায় শুধু খাম্বা। বিদ্যুৎ পায় না। হাওয়া ভবনের মাধ্যমে লুটপাট হয়। বিএনপি এখন একটি মিটিংও করতে পারে না। সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি এখন বাংলাদেশ নালিশ পার্টিতে পরিণত হয়েছে। আন্দোলনের ডাক দিয়ে ম্যাডাম চলে গেছেন লন্ডনে। এ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, তুরাগ নদে জোয়ার আছে, বালু নদে জোয়ার আছে কিন্তু বিএনপির আন্দোলনে জোয়ার নেই।

আগামী সিটি করপোরেশন নির্বাচন হবে সেমিফাইনাল খেলা। আর জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে ফাইনাল খেলা। কাদের আরও বলেন, চিহ্নিত কোনো সন্ত্রাসী, কোনো চাঁদাবাজ, কোনো সাম্প্রদায়িক মানুষকে আওয়ামী লীগের সদস্য করা যাবে না।

গাজীপুর জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সমাবেশে জেলা সভাপতি ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদ ডা. দীপু মনি, মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, দলের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, কেন্দ্রীয় সদস্য সিমিন হোসেন রিমি এমপি, দলের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট রহমত আলী এমপি, জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান, ইকবাল হোসেন সবুজ, জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

এ সময় ওবায়দুল কাদেরের কাছ থেকে আ ক ম মোজাম্মেল হক সদস্য ফরম নিয়ে সদস্য পদ নবায়ন করেন এবং এর কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। এ ছাড়া সিমিন হোসেন রিমি এমপি, জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, মেহের আফরোজ চুমকি এমপিসহ আরও অনেকে তাদের সদস্য পদ নবায়ন করেন।