কিশোরগঞ্জ ছাড়া ময়মনসিংহ বিভাগ অসম্পূর্ণ : অতিরিক্ত আইজিপি মোখলেসুর রহমান

মো. নজরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ ব্যুরো চীফ :
মহুয়া-মলুয়া, চন্দ্রাবতি ও ময়মনসিংহ গীতিকা আর ময়মনসিংহ, কিশোরগঞ্জ ও নেত্রকোণা জেলার লোক কৃষ্টি ও সংস্কৃতি একই সূত্রে গাঁথা। তাই কিশোরগঞ্জ জেলা ছাড়া ময়মনসিংহ একটি অসম্পূর্ণ বিভাগ। তাই আগামী দিনে আমরা ময়মনসিংহ বিভাগে কিশোরগঞ্জ জেলাকে দেখতে চাই। এ কথা আমি মহামান্য রাষ্ট্রপতি মোঃ আব্দুল হামিদকেও বলেছি। ময়মনসিংহ বিভাগে অন্তর্ভূক্তির লক্ষ্যে কিশোরগঞ্জের নেতৃবৃন্দকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি ( প্রশাসন ও অপারেসনস ) মোঃ মোখলেসুর রহমান।
বাংলাদেশে কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রমের জন্মস্থান ময়মনসিংহসহ সারাদেশে এই প্রথম কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০১৭ উদযাপন উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে অতিরিক্ত আইজিপি মোখলেসুর রহমান এসব কথা বলেন।
‘পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ শনিবার সকালে শোভাযাত্রা, পতাকা উত্তোলন ও বেলুন উড়ানো, কমিউনিটি পুলিশিং সম্পর্কে ডকুমেন্টরী, থিমসং, পালাগানসহ দিনব্যাপী নানা কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান।
শনিবার দুপুরে শহরের টাউন হলে অ্যাডভোকেট তারেক স্মৃতি অডিটরিয়ামে ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার সৈয়দ নূরুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ফখরুল ইমাম এমপি, রেঞ্জ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র ইকরামুল হক টিটু, মহানগর আওয়ামীলীগ সভাপতি এহতেশামূল আলম, জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, মহানগর জাতীয় পার্টির আহবায়ক জাহাঙ্গীর আহমেদ, কমিউনিটি পুলিশিং জেলা কমিটির সভাপতি মমতাজ উদ্দিন মন্তা ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সাদিক হোসেন।
মুক্তিযুদ্ধে সকল বাহিনীর চেয়ে পুলিশের ভূমিকা অত্যাধিক উল্লেখ করে বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি ( প্রশাসন ও অপারেসনস ) মোঃ মোখলেসুর রহমান বলেন জনবান্ধন পুলিশ আমরা গড়ে তুলতে চাই। জননিরাপত্তা দিয়ে আমরা এই দেশকে সুখী বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে চাই। তিনি বলেন সন্ত্রাস দমনে আমরা বিশ্বে রোল মডেল। শান্তিপ্রিয় মানুষের কাছে সন্ত্রাস পরাজয়বরণ করেছে। বিগত জামায়াত ও তার দোসররা পুলিশের উপর যে নির্মম নির্যাতন করে পুলিশকে হত্যা করেছে তা সমস্ত রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। তবুও আমরা ( পুলিশ) মনোবল হারায়নি। আমরা আল্লাহ তায়ালার রহমতে এবং মাদার অব হিউমিনিটি বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কণ্যা প্রধানমন্ত্রীর অনুপ্রেরণা ও দিক নির্দেশনায় বাংলাদেশ পুলিশ ঘুরে দাঁড়িয়েছে।
অতিরিক্ত আইজিপি মোঃ মোখলেসুর রহমান আরো বলেন সন্ত্রাস, নাশকতা, মাদক ও অন্যায়ের সাথে আওয়ামীলীগসহ যো কোনো দলের প্রভাবশালী নেতাই হোক কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না, তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।
সেবার মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে অতিরিক্ত আইজিপি পুলিশের প্রত্যেক সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন অত্যাচারী, নির্যাতিত, অসহায়, গরীব দুঃখী মানুষের কথা আন্তরিকভাবে শুনুন এবং তাদেও পাশে দাঁড়ান।
বর্তমান আইজিপি একেএম শহীদুল হক ময়মনসিংহ জেলায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে ১৯৯৩ সালে পরীক্ষামূলকভাবে ময়মনসিংহ শহরে টাউন ডিফেন্স পার্টি নামে কমিটি গঠন করে কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম শুরু করেন। পরবর্তীতে তা কমিউনিটি পুলিশিং রূপলাভ করে। ১৯৯৪ সালে ঢাকা মহানগরীর কাফরুল ও ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় কমিউনিটি পুলিশিং চালু করা হয়। ২০০০ সালে সারা বাংলাদেশে কমিউনিটি পুলিশিং ্এর কার্যক্রম ছড়িয়ে পড়ে। এখন থেকে প্রতি বছরের অক্টোবর মাসের শেষ শনিবার কমিউনিটি পুলিশিং ডে উদযাপিত হবে।