নাইকোর আবেদন ৩ সপ্তাহের জন্য মুলতবি

নিউজ ডেস্ক: বাপেক্স ও পেট্রোবাংলার সঙ্গে কানাডীয় কোম্পানি নাইকো রিসোর্সের চুক্তি বাতিল করে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের বিরুদ্ধে নাইকোর করা আবেদনটি স্ট্যান্ড ওভার (মুলতবি) করেছেন আপিল বিভাগ।

দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

বাপেক্সের সঙ্গে নাইকোর যৌথ উদ্যোগের (জয়েন্ট ভেঞ্চার) চুক্তি এবং পেট্রোবাংলার সঙ্গে নাইকোর গ্যাস সরবরাহ ও কেনাবেচার চুক্তি বাতিল করে গত ২৪ আগস্ট রায় দেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে চুক্তি দুটির আওতায় নাইকো কানাডা ও নাইকো বাংলাদেশের সব সম্পত্তি রাষ্ট্রের অনুকূলে ফেরত দেওয়ার রায় দেন।

হাইকোর্টের ওই রায় স্থগিত চেয়ে নাইকো রিসোর্স (বাংলাদেশ) লিমিটেড আবেদন করে। যা আজ বৃহস্পতিবার শুনানির জন্য আপিল বিভাগে ওঠে।

আদালতে নাইকোর পক্ষে ছিলেন আইনজীবী রোকন উদ্দিন মাহমুদ ও মোস্তাফিজুর রহমান খান।

অন্যদিকে রিট আবেদনকারীর পক্ষে ছিলেন আইনজীবী তানজিব-উল আলম। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, হাইকোর্টের রায় স্থগিত চেয়ে নাইকো আবেদনটি করেন। আদালত স্থগিতাদেশ দেননি। বলেছেন, রায়ের প্রত্যয়িত কপি নিয়ে আসতে। তিন সপ্তাহের জন্য আবেদনটি স্ট্যান্ড ওভার রাখা হয়েছে। ফলে হাইকোর্টের রায়ই বহাল থাকছে।

বাংলাদেশে নাইকো এখন কেবল কুমিল্লার বাঙ্গুরা গ্যাসক্ষেত্রে গ্যাস উত্তোলনের কাজে অংশীদার। এ ছাড়া ছাতক ও ফেনী গ্যাসক্ষেত্রের সঙ্গে তারা যুক্ত। তবে ছাতকে গ্যাস উত্তোলনে কূপ খননের সময় দুর্ঘটনায় এটি পরিত্যক্ত হয়।