ক্ষমা চাইলেন মার্ক জাকারবার্গ

নিউজ ডেস্ক: ফেইসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ শনিবার ইহুদি বর্ষের পবিত্র দিন ইওম কিপুর উপলক্ষ্যে দেওয়া এক বার্তায় ‘বিভক্তি তৈরি’র জন্য ক্ষমা চেয়েছেন।

ফেইসবুকে একটি পোস্টের মাধ্যমে নিজের বক্তব্য তুলে ধরেন জাকারবার্গ। তিনি লিখেছেন, ‘মানুষকে কাছে আনার পরিবর্তে যেভাবে আমার কাজকে ব্যবহার করা হয়েছে বিভক্তি তৈরির উদ্দেশ্যে, সেজন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী। আমি এরপর থেকে সবার ভালোর জন্য কাজ করবো।’

কিছুদিন আগেই ফেইসবুককে তার ‘বিরোধী পক্ষ’ হিসেবে আখ্যা দিয়ে টুইট করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এছাড়াও ২০১৬ তে ফেইসবুককে ব্যবহার করে রাশিয়া মার্কিন নির্বাচন নিয়ে প্রোপাগান্ডা ছড়িয়েছে- এমন প্রমাণও মিলেছে সম্প্রতি।

নির্বাচন ইস্যুকে কেন্দ্র করে মার্কিন সিনেট সভার তদন্ত কমিটির কাছে তথ্যপ্রমাণ জমা দেওয়ার কথাও রয়েছে ফেইসবুকের।

ট্রাম্পের টুইটের জের ধরে গত সপ্তাহেই জাকারবার্গ জানিয়েছিলেন নির্বাচনের সময় বিভিন্ন মহল থেকে কোটি কোটি ডলার ঢালা হয়েছিলো প্রচারণার পেছনে। এরমধ্যে তিন হাজারেরও বেশি ‘সমস্যাযুক্ত’ বিজ্ঞাপন ও ৪৭০ টি ফেইক অ্যাকাউন্টের অস্তিত্ব পেয়েছে ফেইসবুক, যেগুলোর মাধ্যমে নির্বাচনে প্রভাব ছড়ানোর অভিযোগ এসেছে।

তবে সাম্প্রতিকতম পোস্টে এধরণের রাজনৈতিক কারণকে কেন্দ্র করেই ক্ষমা চাইলেন কিনা, সে বিষয়টি খোলসা করেন নি জাকারবার্গ।

এ ধরণের রাজনৈতিক কারণকে কেন্দ্র করেই ক্ষমা চাইলেন কিনা, সে বিষয়টি খোলসা করেন নি জাকারবার্গ।