কুমিল্লায় ফাঁস দিয়ে নবম শ্রেণীর ছাত্রীর আত্মহত্যা

বারী উদ্দিন আহমেদ বাবর, কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার গুনাইঘর গ্রামের আল-আমিনের মেয়ে ও বাঙ্গরী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী শাহিনূর আক্তার নামে এক কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করার খবর পাওয়া গেছে। আজ রোববার (০১ অক্টোবর) বিকেলে নিজ ঘরের তীরের সাথে উড়না দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন।

নিহতের ভাই রাজীব আহমেদ জানায়, আমার ৫ বোনের মধ্যে শাহিনূর তৃতীয় ছিল। বড় বোনের বিয়ে হয়ে গেছে। ঘটনার সময় শাহিনূর ছাড়া আর কেউ ছিলনা। আমি মসজিদ থেকে নামাজ শেষে আমার কক্ষে ঢোকার চেষ্টা করে দখি ভেতর দিয়ে দরজা বন্ধ।

পরে মই এনে ঘরের ভেন্টিলেটার দিয়ে ভিতরে ঢুকে করে দেখি শাহিনূর তীরের সাথে উড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে ঝুলে আছে। এরপর আমার চিৎকারে বাড়ির লোকজন আসলে তাদের সহযোগিতায় গলা তেকে ফাঁস খুলে বেলা আড়াইটার দিকে তাঁকে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসি। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত; ঘোষনা করে। তবে কি কারনে ওই ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে তা জানা যায়নি। খবর পেয়ে দেবিদ্বার থানা পুলিশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে শাহিনূরের মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) খাইরুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকের কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলে তাঁর মৃত্যুর কারন জানা যাবে।