পবিত্র আশুরা উপলক্ষে তাজিয়া মিছিলে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা: ডিএমপি

নিউজ ডেস্ক: পবিত্র আশুরা উপলক্ষে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এবার শিয়া মতাবলম্বী মুসলমানদের তাজিয়া মিছিলে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেবে ঢাকা মহানগর পুলিশ। মিছিলে অংশগ্রহণ করতে হলে নিরাপত্তার স্বার্থে সবাইকে যেতে হবে তল্লাশি পেরিয়ে। থাকবে সিসি ক্যামেরা ও পুলিশের কড়া প্রহরা।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর লালবাগ থানাধীন হোসেনি দালান ইমামবাড়ায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

তিনি বলেন, তাজিয়া মিছিলে সব প্রকার ধাতব বস্তু বহন, জিঞ্জির, দা-ছুরি-তলোয়ার, ঢোল-লাঠিখেলা এবং আগুন খেলা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তাজিয়া মিছিলকে কেন্দ্র করে হোসেনি দালান থেকে ধানমন্ডি লেক পর্যন্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরালো থাকবে।

তিনি বলেন, অংশগ্রহণকারীদের মিছিলে ঢোকার আগেই আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর তল্লাশির মুখোমুখি হতে হবে। মাঝপথে কাউকে মিছিলে যোগদান করতে দেয়া হবে না। এ জন্য শিয়া মতাবলম্বী মুসলমানদের সহযোগিতা আহ্বান করেন ডিএমপি কমিশনার।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, হোসেনি দালান, বিবিকা রওজাসহ রাজধানীতে মিছিল যাওয়ার প্রত্যেকটি পথে সিসি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে। নিয়মিত বাহিনীর পাশাপাশি সাদা পোশাকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা মোতায়েন থাকবে।

২০১৫ সালের আশুরায় তাজিয়া মিছিলে প্রস্তুতির সময় হোসেনি দালানে হামলার ঘটনার পর থেকে নিরাপত্তা আরও জোরদার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আগামী ১ অক্টোবর আশুরা উপলক্ষে হোসেনি দালানসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় তাজিয়া মিছিল শুরু হয়ে ধানমন্ডি লেকে গিয়ে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, হোসেনি দালানে হামলার ঘটনায় বিস্ফোরক মামলায় অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হয়েছে। মামলার কিছু আসামিকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। কিছু আসামি জঙ্গিবিরোধী অভিযানে নিহত হয়েছে।