তেলাপিয়া মাছের রোগ নিয়ন্ত্রনে করনীয়

নিউজ ডেস্ক: এশিয়াতে তেলাপিয়া মাছের উৎপাদন সবচেয়ে বেশি। বাংলাদেশে হোল ফ্রোজেন, ফিলেট ফ্রোজেন, ফিলেট ফ্রেশ- এই তিন ধরনের তেলাপিয়া চাষ করা হয়। তাই চাষকৃত তেলাপিয়া মাছের রোগ হলে করণীয় কী- এ সম্পর্কে জেনে নিন।

লক্ষণ
• মাছের কানকার কিছু অংশ বিবর্ণ হয়ে যায়।
• অঙ্কীয়দেশে কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত দাগ দেখা যায়।
• মাছের পিত্তথলী স্বাভাবিকের চেয়ে কিছুটা বড় হয়ে যায়।
• কেবল ১০০-৪০০ গ্রামের মাছেই এই রোগ দেখা যায়।
• আক্রান্ত হওয়ার সাথে সাথে মাছ দ্রুত মারা যায়।
• মৃত্যুর আগে মাছগুলো কুণ্ডলি আকারে ঘোরাফেরা করে।
১. কোন অনুজীব যেমন- ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া আক্রমণ।
২. পরিবেশগত বিশৃঙ্খলতা
৩. আশেপাশের এলাকায় অতিরিক্ত পরিমাণ রাসায়নিক সার কিংবা আগাছা নাশকের ব্যবহার।
৪. খাঁচায় মাছের জন্য অতিরিক্ত খাবার সরবরাহ।
৫. প্রতিটি খাঁচায় মাছের অধিক ঘনত্ব।
৬. খাঁচার ভেতরের পানির রঙের তারতম্য।
৭. খাঁচায় অক্সিজেন সরবরাহ কম। খাঁচায় বেশি পরিমাণ অক্সিজেন সরবরাহ করতে হবে।
• খাঁচায় মাছের ঘনত্ব কমাতে হবে।
• খাদ্য সরবরাহ কমাতে হবে।
• নেট পরিষ্কার রাখতে হবে।
• অ্যান্টিবায়োটিক ডোজ বাড়াতে হবে।
• খাঁচাগুলো সারিবদ্ধভাবে না রেখে আঁকা-বাঁকা করে রাখতে পারেন।