লক্ষীপুরে জোরপূর্বক মসজিদের জমিতে দোকান-ঘর নির্মাণ

লক্ষীপুর প্রতিনিধি : লক্ষীপুরে ইউএনও’র নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জোরপূর্বক মসজিদ ও ওয়াপদার জমিতে দোকান ঘর নির্মাণ করেছে প্রভাবশালীরা। মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্বর) এ ঘটনায় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ নুরুজ্জামান সরেজমিন পরিদর্শন করে। এসময় ঘটনার সাথে জড়িত একজনকে আটক করা হয়। পরে স্থানীয়দের সুপারিশে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

জানা যায়, ইউএনও’র নিষেধাঙ্গা অমান্য করে চাঁদখালী বাজার সমিতির সভাপতি আবদুর রহিম ভূঁইয়া ও সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ দোকা-ঘর নির্মাণ করে। তাদের সাথে আরো কয়েকজন সুবিধাভোগী লোক জড়িত আছেন বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। এ ব্যাপারে সদর উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে ন্যায় বিচারের দাবিতে লিখিতভাবে অভিযোগ করেন মসজিদে জমিদাতা আবু তাহের ভূঁইয়া। পরে ইউএনও ওই স্থানে দোকান-ঘর নির্মাণে নিষেধ করে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পুনরায় দোকান-ঘর নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়।

মসজিদে জমিদাতা পরিবারের সদস্য আব্দুর নুর শিপু বলেন, আমার দাদা মৌখিকভাবে মসজিদের জন্য জমি দান করেছেন। বর্তমানে লিখিতভাবে মসজিদের নামে জমিটি দেওয়ার চেষ্টা চলছে। কিন্তু অসাধু একটি চক্র মসজিদের জমিতে জোরপূর্বক দোকান-ঘর নির্মাণ করে সুবিধা গ্রহণ করে আসছে। মসজিদের নামে দোকানÑঘর নির্মাণ করে নিজেরা দখলের পায়তারা করছে।

লাহারকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন মশু বলেন, ইউএনও এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। দ্রুত মসজিদ ও ওয়াপদার জমির ওপর নির্মাণ করা দোকান-ঘর সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।