মালিতে নিহত সেনা সদস্য জাকিরুলের গ্রামের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম

ময়মনসিংহ উত্তর প্রতিনিধি ঃ
জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী মিশনে নিয়োজিত মালিতে নিহত সেনা সদস্য নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলায় জাকিরুল ইসলাম ওরফে সোহাগের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। তাঁর মৃত্যু সংবাদ শোনার পর থেকেই নিহতের জারিয়া গ্রামের বাড়িতে তার বৃদ্ধ বাবা ছফির উদ্দিন সরকার, মা জোসনা বেগম, স্ত্রী মার্জিয়া তামান্নসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বার বার মূর্ছা যাচ্ছেন। নিহতের ৬ বছরের ছেলে তাইজ ও ৩ বছরের আরেক ছেলে তাজদীদ নির্বাক হয়ে ফেল ফেল চোখে তাকিয়ে আছে। তারা বুঝে উঠতে পারছেনা কেন এ শোকের মাতম।
নিহতের পারিবরিক সূত্রে জানা যায়, গত রোববার বিকেল তিনটার দিকে ঢাকা থেকে জাকিরুলের চাচাত ভাই সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন শফিকুল ইসলাম মোবাইল ফোনে জাকিরুলের মৃত্যুর সংবাদটি তার পরিবারকে জানায়।
গত শনিবার বিকেলে স্ত্রী ও মায়ের সঙ্গে শেষবারের মতো কথা বলেন জাকিরুল । তখন সবার কাছে দোয়া চান তিনি। জাকিরুলের ৬ বছর ও ৩ বছরের দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে। গত ৭বছর আগে তিনি ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার চোরখাই গ্রামে বিয়ে করেন । জাকিরুলের গ্রামের বাড়ী নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার জারিয়া গ্রামে।
গত ২০০২ সালে জাকিরুল সেনাবাহিনীর আর্টিলারী কোরে যোগদান করেন।
চলতি বছরের ১৭ মে তিনি জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী মিশনে যোগ দেন। ৩ ভাই ও ২ বোনের মধ্যে জাকিরুল সবার ছোট।