কুমিল্লায় ৫ম শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণ

বারী উদ্দিন আহমেদ বাবর, কুমিল্ল: কুমিল্লার বরুড়া উপজেলায় ৫ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার শিলমুড়ী (দঃ) ইউনিয়নের বাশপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে স্কুলে যাওয়ার সময় প্রতিবেশী আলী হোসেনের ছেলে বখাটে আবুল কালাম (২৭) রাস্তার পাশে পরিত্যক্ত একটি ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। এরপর ঘটনাটি কাউকে জানালে তাঁকে হত্যার হুমকি দেয় ওই বখাটে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে বরুড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। আজ রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১০টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ মামলায় কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

বরুড়া থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানায়, গত রোববার (১৭ সেপ্টেম্বর) এ ঘটনা ঘটার পর মেয়েটি অসুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরে তাঁর মায়ের কাছে বিস্তারিত খুলে বলে। এরপর তাঁকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে মুদাফ্ফরগঞ্জ এবং পরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে মেয়েটি কুমেক হাসপাতালে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছে।

বিষয়টি এলাকায় জানাজানির পর ওই ছাত্রীর পিতা গ্রামবাসীকে নিয়ে ধর্ষক কালামের নিকট ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে ক্ষুদ্ধ হয়ে বখাটে কালাম ও তার ভাইয়েরা মিলে ওই ছাত্রীর পিতাকে এলোপাতাড়ী মারধর করে। পরবর্তীতে আমি গতকাল শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ঘটনাটি জানতে পেরে তাৎক্ষনিক কুমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা মেয়েটিকে গিয়ে দেখে আসি এবং থানায় একটি মামলা গ্রহণ করি। তিনি আরো বলেন, বখাটে ধর্ষক আবুল কালামকে গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।