বিশ্ব ওজোন দিবসে প্রধানমন্ত্রীর বাণী

ঢাকা, ৩১ ভাদ্র (১৫ সেপ্টেম্বর) : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ব ওজোন দিবস উপলক্ষে নিম্নোক্ত বাণী প্রদান করেছেন : “বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও আজ বিশ্ব ওজোন দিবস পালন এবং মন্ট্রিল প্রটোকল গৃহীত হওয়ার ৩০ বছর পূর্তি উদ্যাপন করা হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। এ উপলক্ষে আমি সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

বিশ্ব ওজোন দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘ঈধৎরহম ভড়ৎ ধষষ ষরভব ঁহফবৎ ঃযব ংঁহ’ যার ভাবার্থ ‘নিরাপদ সূর্যালোকে যতনে থাকিবে প্রাণ’ যথাযথ হয়েছে বলে আমি মনে করি।
১৯৮৭ সালে গৃহীত মন্ট্রিল প্রটোকল ওজোনস্তর রক্ষা এবং জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় উল্লেখযোগ্য অবদান রাখছে। বাংলাদেশ মন্ট্রিল প্রটোকল বাস্তবায়নে সাফল্যের স্বাক্ষর রেখেছে। আমরা ২০১০ সালের মধ্যেই সিএফসিসহ উল্লেখযোগ্য ওজোন ক্ষয়কারী দ্রব্যের ব্যবহার বন্ধে সক্ষম হয়েছি। ওজোনস্তর রক্ষায় বাংলাদেশের সাফল্য বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছে।

মন্ট্রিল প্রটোকলের আওতায় হাইড্রোফ্লোরোকার্বন (এইচএফসি) নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে সম্প্রতি বিশ্ব নেতৃবৃন্দ একমত হয়েছেন। বিশ্ববাসী সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় মন্ট্রিল প্রটোকল যেভাবে সফলতার সঙ্গে ওজোনস্তর ক্ষয়কারী দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ করেছে, আগামীতেও এ প্রটোকল একইভাবে এইচএফসির ব্যবহার হ্রাসে ভূমিকা রাখবে- এ আমার প্রত্যাশা।

আমি আশা করি, এবারের বিশ্ব ওজোন দিবস পালন মন্ট্রিল প্রটোকল বাস্তবায়নে বাংলাদেশের সাফল্য তুলে ধরার পাশাপাশি ওজোনস্তর রক্ষা ও জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে কার্যকর ভূমিকা রাখবে। শিল্পক্ষেত্রে টেকসই পরিবেশবান্ধব ও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী প্রযুক্তির ব্যবহার উৎসাহিত করবে।

আমি বিশ্ব ওজোন দিবস ২০১৭ পালন ও মন্ট্রিল প্রটোকলের ৩০ বছরপূর্তি উদ্যাপন উপলক্ষে গৃহীত সকল কর্মসূচির সাফল্য কামনা করছি।

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু
বাংলাদেশে চিরজীবী হোক।”