রাজনীতিতে থাকবে শুধু মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ : তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা : শনিবার, ২২ এপ্রিল, ২০১৭: জঙ্গিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে রাজনীতিতে একবার রাজাকার-একবার মুক্তিযোদ্ধার সরকার- এই ‘মিউজিক্যাল চেয়ারে’র খেলা চিরতরে বন্ধ করতে হবে, বলেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

আজ শনিবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে জাসদ কার্যালয়ের সামনে ‘জঙ্গিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে হলে: রাজনীতিতে একবার রাজাকার-একবার মুক্তিযোদ্ধার সরকার- এই মিউজিক্যাল চেয়ারের খেলা বন্ধ করার’ দাবিতে ঢাকা মহানগর জাসদের মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী এদাবি জানান।

‘রাজাকার ও তাদের দোসরেরা স্বাধীনতার শত্রু ও জঙ্গিদের পৃষ্ঠপোষক, সেকারণে রাজনীতিতে কোনোভাবেই এদের স্থান দেয়া উচিত নয়’ উল্লেখ করে হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘আমরা যখন জঙ্গিদমনের যুদ্ধে একটার পর একটা সাফল্য অর্জন করছি, তখন তাদের দোসররা গণতন্ত্রের দোহাই দেয়ার সুযোগ নিয়ে রাজনীতিতে হালাল হওয়ার অপচেষ্টায় লিপ্ত। তারা যতদিন রাজনীতির মাঠে সক্রিয় থাকবে, ততদিন দেশে জঙ্গি উৎপাদন-পুণরুৎপাদন হতে থাকবে।’

‘যারা জঙ্গি, যুদ্ধাপরধী ও রাজাকারদের সাথে সম্পর্ক রাখে, সংবিধানের চারনীতি মানেনা, স্বাধীনতার ঘোষণা ও বঙ্গবন্ধুকে মানেনা, ত্রিশ লক্ষ শহীদ ও পঁচিশে মার্চের কালোরাত মানেনা, তাদের সাথে রাজনৈতিক লেনদেন আত্মঘাতী এবং দেশের গণতন্ত্রের জন্য হুমকিস্বরূপ’, বলেন তথ্যমন্ত্রী।

ঢাকা মহানগর জাসদের সমন্বয়ক মীর হোসাইন আখতারের সভাপতিত্বে শিরীন আখতার এমপি ও দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াও সর্বস্তরের মানুষ মানববন্ধনে যোগ দেয়। শিল্পী লাকী আখন্দের অন্তিম শয়ানে তথ্যমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

শনিবার দুপুরে রাজধানীতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিশিষ্ট সঙ্গীতশিল্পী লাকী আখন্দ এর মরদেহে পুস্পার্ঘ্য অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, সহ-সভাপতি ফজলুর রহমান বাবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. হাবিবুর রহমান শওকত, ওবায়দুর রহমান চুন্নু, শওকত রায়হানসহ জাসদ নেতৃবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

-মীর আকরাম উদ্দীন আহম্মদ/ সিনিয়র তথ্য অফিসার/০১৭৬৩-৭৭০২০৭

তথ্যমন্ত্রীর মিডিয়া কাভারেজ আগামীকাল রোববার, ২৩ এপ্রিল।
মাননীয় তথ্যমন্ত্রী জনাব হাসানুল হক ইনু, এমপি আগামীকাল রোববার, ২৩ এপ্রিল ২০১৭ নিম্নবর্ণিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করবেন।

সকাল ১০:০০ সিরডাপ মিলনায়তন (শিক্ষা ভবনের পাশে), তোপখানা রোড, ঢাকা।

‘তথ্য কর্মকর্তাদের জন্য হিউম্যান ডিভালপমেন্ট মিডিয়া’ কর্মশালা উদ্বোধন
আয়োজনঃ গণযোগাযোগ অধিদপ্তর ও এটুআই

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রেস/টিভি কাভারেজের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশিত হয়ে অনুরোধ জানাচ্ছি।