হেফাজতের মামুনুল হক ফেসবুক লাইভে যা বলল

হেফাজতের মামুনুল হক ফেসবুক লাইভে যা বলল
হেফাজতের মামুনুল হক ফেসবুক লাইভে যা বলল

নিউজ ডেস্ক:  হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক বৃহস্পতিবার ফেসবুক লাইভে এসে বক্তব্য দিয়েছেন। সেখানে তিনি স্বীকার করেছেন, গত কয়েক দিনে ফাঁস হওয়া ফোনালাপ তারই ছিল।

তিনি বলেন, ‘স্ত্রীর সঙ্গে আমার ফোনালাপ একান্ত ব্যক্তিগত ও পারিবারিক বিষয়। অত্যন্ত দুঃখ ও পরিতাপের বিষয় এখানে আমার ব্যক্তিগত গোপনীয়তা মারাত্মকভাবে ক্ষুণ্ণ করা হয়েছে। সেই ব্যক্তিগত আলাপচারিতা ও কথপোকথন জনসম্মুখে প্রকাশ করে আমার নাগরিক অধিকার, ধর্মীয় অধিকার ও ব্যক্তি স্বাধীনতার অধিকারে হস্তক্ষেপ করা হয়েছে। যারা আমার ব্যক্তিগত ফোনালাপ ফাঁস করেছেন অনতিবিলম্বে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’

একের পর এক মামুনুলের ফোনালাপ ফাঁস হওয়ার পর অনেকের সন্দেহ ছিল- এগুলো সত্যি তার কথোপকথন কি-না। না-কি কেউ এসব তৈরি করেছেন। তবে বৃহস্পতিবার মামুনুলের বক্তব্যের পর ফোনালাপ যে তারই সে বিষয়ে কোনো সংশয় থাকলো না।

মামুনুল বলেন, ‘এত এত ফোনালাপ যে ফাঁস হচ্ছে, কোনও একটি ফোনালাপ থেকে কি প্রমাণ করতে পেরেছেন যে, জান্নাত আরা ঝর্না অন্য কারও বিবাহিত স্ত্রী? অথবা এই কথা কি আপনারা প্রমাণ করতে পেরেছেন, তিনি আমার বিবাহিত স্ত্রী নন? বরং যতগুলো তথ্য প্রমাণ আপনারা ঘাঁটাঘাঁটি করেছেন, সবগুলোর মাধ্যমে এই কথাই দিবালোকের মতো স্পষ্ট হয়েছে যে, জান্নাত আরা ঝর্না আমার বিবাহিত স্ত্রী।

সুতরাং, আমার দ্ব্যর্থহীন বক্তব্য- আপনারা যারা আমার ব্যক্তিগত গোপন তথ্যগুলোকে, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দাম্পত্য আচরণগুলোকে যারা প্রচার করেছেন, তাদেরকে বলছি, আমি কীভাবে আমার স্ত্রীদের সঙ্গে কথা বলবো, সেটা আমার ধর্মীয় এবং নাগরিক অধিকার। সেই বিষয়ে অন্য কাউকে নাক গলানোর সুযোগ ধর্ম, সমাজ ও আইন-আদালত দেয়নি।