আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবস

আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবস
আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবস

নিউজ ডেস্ক : আজ ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। এবার নারী দিবসে ‘করোনা বিশ্বে নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ করি, সমতা অর্জনে নারী নেতৃত্ব নিশ্চিত করি’- এই স্লোগানকে সামনে রেখে রোববার রাত ১২ টা ১ মিনিটে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে আঁধার ভাঙার শপথ নিয়ে জ্বালানো হয় হাজারখানেক মোমবাতি। এবারের নারী দিবস ঘিরে ‘আমরাই পারি পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোট’ এর আয়োজন করে।

সকল ক্ষেত্রে নারী-পুরুষের সমঅংশীদারিত্ব নিশ্চিত করা, নারীর জন্য প্রতিটি স্থান, সময় ও মুহূর্তকে নিরাপদ করতে নারীর চলাচলের স্বাধীনতায় প্রতিবন্ধকতা তৈরিকারী আঁধার দূর করা প্রয়োজন।

এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির জাতীয় কমিটির সদস্য ও জেন্ডার বিশেষজ্ঞ এম ভি আখতার, মিডিয়া অফিসার মার্জিয়া প্রভাসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। অনলাইনে যুক্ত ছিলেন সাবেক মহিলা ও শিশু প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, আমরাই পারি জোটের নির্বাহী সমন্বয়কারী জিনাত আরা হকসহ জেলা জোটের সদস্য, আইনজীবী জোটের সদস্য এবং স্টুডেন্ট চেইঞ্জ মেকাররা।

কর্মসূচিতে নারীর প্রতিরোধে শপথ বাক্য পাঠ করেন উপস্থিত নেতৃবৃন্দ। শপথবাক্য পাঠ করান এম ভি আখতার। কর্মসূচিতে গত একবছরে নির্যাতনে মারা যাওয়া সকল নারীর আত্মার শান্তি কামনা করে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

গত ১১ বছর ধরে নারী দিবসের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে মোমবাতি প্রজ্জ্বালনের মাধ্যমে এই আঁধার ভাঙার নিয়ে আসছে সংগঠনটি। সংগঠনটি বাংলাদেশে নারী নির্যাতন বন্ধে নাগরিক সমাজ, বিভিন্ন সংস্থা, প্রতিষ্ঠান এবং ব্যক্তিদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় প্লাটফর্মটি প্রস্তুত হয়েছে। নারী নির্যাতনের সামাজিক গ্রহণযোগ্যতা হ্রাস করার মধ্য দিয়ে পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রে নারী পুরুষ সমতা নিশ্চিত করা এবং বাংলাদেশকে নারীর জন্য অধিকতর নিরাপদ স্থানে পরিণত করার লক্ষ্য নিয়ে বাংলাদেশের ৪৮টি জেলায় ‘আমরাই পারি জোট’ নারী নির্যাতন বন্ধে কাজ করছে।

এ সংগঠনটির সাথে সম্পৃক্ত আছে ৩৯টি নেতৃত্বদানকারী সংস্থা, ৩৪ জেলার স্টুডেন্ট চেঞ্জমেকার প্রতিনিধি, আমারাই পারি আইনজীবী জোট এবং প্রায় ২০০টির মতো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান এবং প্রায় ১১ লাখ পরিবর্তনকামী সাধারণ মানুষ বা চেঞ্জমেকার।

ঢাকানিউজ২৪.কম