গরমকাল করোনা প্রকোপ বাড়ার আশঙ্কা

গরমকাল করোনা প্রকোপ বাড়ার আশঙ্কা
গরমকাল করোনা প্রকোপ বাড়ার আশঙ্কা

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশে করোনায় প্রতিদিন আক্রান্ত তিনশততে নেমে এলেও ক’দিনে তা আবার ৬০০ এর ওপরে উঠেছে। গরমকাল আসছে করোনার প্রকোপ আরও বাড়বে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে জানান, শুক্রবার ৫ ফেব্রুয়ারী ২৪ ঘণ্টায় ৬৩৫ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। যা বৃহস্পতিবার আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৬১৯ জন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, টিকা আসার পর স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে মানুষের মধ্যে শিথিলতার কারণে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। দ্রুত সতর্ক না হলে টিকা আসার পরেও পরিস্থিতি আবার খারাপ হবে মনে করছেন তারা।

ধারণা করা হচ্ছিল, শীতকালে ভাইরাসের প্রকোপ আরও বাড়বে। কিন্তু বাস্তবে দেখা যায় উল্টো।

করোনা ভাইরাসের নতুন ইউকে ধরনটি বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে কি-না সেটা পরীক্ষা করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ বেনজির আহমেদ।

বিশ্বে করোনার যেসব ধরন দেখা গেছে তারমধ্যে ব্রিটেন বা ইউকে ভেরিয়েন্ট বেশ দ্রুত ছড়ায়। বেনজির আহমেদের ধারণা, বাংলাদেশে ইউকে ভেরিয়েন্ট ঢুকে পড়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা সুলতানা, জানুয়ারি থেকে করোনার সংক্রমণ কমে আসায় এবং দেশব্যাপী টিকা দেওয়া শুরু হওয়ায় জনমনে স্বস্তি দেখা দিয়েছিল। সে-কারণ মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে শিথিলতা দেখা যাচ্ছে। মানুষ এখন ছুটির দিনগুলোয় বিভিন্ন পর্যটন স্থানে ভিড় করছেন। সামাজিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সভা-সমাবেশেও যেতে শুরু করেছেন। সেখানে সামাজিক দূরত্ব মানা হচ্ছে না। অনেকে মাস্কও ব্যবহার করছেন না।

এ পরিস্থিতিতে মাস্ক পরা, ২০ সেকেন্ড ধরে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া এবং তিন ফুট সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা জরুরি। সেই সঙ্গে দ্রুত করোনাভাইরাস পরীক্ষা, কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেশন মেনে চলার ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

ঢাকানিউজ২৪.কম