চীন বারবার ভারতের সাহসের পরীক্ষা নিয়েছে: রাহুল গান্ধী

নিউজ ডেস্ক:  কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী তামিলনাড়ুতে শনিবার নির্বাচনী সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কড়া সমালোচনা করেন। আগামী ৬ এপ্রিল রাজ্যটিতে বিধানসভা নির্বাচন।

মোদি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে উপকারী নাকি ক্ষতিকারক সেটা মূল প্রশ্ন নয় বলে উল্লেখ করে রাহুল বলেন, ‘মোদি চীনা জুজুর ভয়ে ভীত এবং দেশে মুষ্টিমেয়ের স্বার্থেই কেবল কাজ করেন। তিনি গরিবদের জন্য কিছুই করেন না এবং ধনীদের স্বার্থে সব কিছুই করে থাকেন। রাহুল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ তোলেন। খবর এনডিটিভির।

স্থানীয় থুথুকুড়ি কলেজে আইনজীবীদের এক সমাবেশে কংগ্রেস নেতা বলেন, ‘লাদাখের ঘটনা থেকে নরেন্দ্র মোদির চীনাভীতি সম্পর্কে সঠিক ধারণা পাওয়া গেছে। ২০১৭ সালে অরুণাচলের ডোকলামেও তিনি একই পরীক্ষা দিয়েছেন।’

রাহুলের মতে, ‘চীন বারবার ভারতের সাহসের পরীক্ষা নিয়েছে। তারা দেখতে চেয়েছে, তাদের আক্রমণমুখী কর্মকাণ্ডের জবাব ভারত কীভাবে দেয়। তারা দেখেছে, মোদির ভারত তাদের কোনো রকম বাধা দেয়ারই চেষ্টা করেনি। ডোকলামে প্রথম পরীক্ষা নেয়ার পর তারা লাদাখেও একই রকম কাজ করেছে। মোদি তার কোনো পাল্টা জবাব দিতে পারেননি।ফলে চীনের বিশ্বাস জন্মেছে যে, মোদি চীনকে ভয় করেন। তাই চীনের ঔদ্ধত্য ক্রমে ক্রমে বেড়ে চলেছে। তারা ভারতের ভূমিগ্রাস করছে। কিন্তু ভারতের সরকার তাতে বাধা দেয়ার সাহস পাচ্ছে না।’

রাহুল আরও বলেন, ‘চীনের আগ্রাসী পদক্ষেপ কেবল লাদাখেই সীমিত থাকবে না। এর পরিসর দিনে দিনে বাড়তে থাকবে।’