করোনা মোকাবিলায় ১০ নির্বাহী আদেশে সই বাইডেনের

নিউজ ডেস্ক:   মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দেশজুড়ে সৃষ্টি হওয়া উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবিলায় ১০টি পৃথক নির্বাহী আদেশে সই করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের পেসিডেন্ট জো বাইডেন।

৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ গ্রহণের পরদিন তিনি এসব আদেশে সই করেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে ভ্যাকসিন প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করা হবে, বাড়ানো হবে করোনার পরীক্ষাও। জরুরি আইনগুলো ব্যবহৃত হবে মাস্কের মত প্রয়োজনীয় পণ্য উৎপাদন বাড়ানোর কাজে।

১০ নির্বাহী আদেশ সইয়ের ঘোষণা দিয়ে প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন, করোনা মহামারি মোকাবিলায় কয়েক মাস পর্যন্ত সময় লেগে যাতে পারে। তবে জনগণ যদি একসঙ্গে থাকে, আমেরিকা এটা করতে পারবে।

এই সময়কে ‘যুদ্ধকালীন’ পরিস্থিতির সঙ্গে তুলনা করে আগামী মাসের মধ্যেই করোনায় মৃত্যুহার কমতে পারে বলে মন্তব্য করেন বাইডেন।

বাইডেন প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১০০ দিনের মধ্যে ১০ কোটি মানুষকে টিকার আওতায় নিয়ে আসার পরিকল্পনার কথা জানানো হয়েছে।

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলয়া সদ্য সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ব্যর্থ হয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তার সমালোচনা হয়েছে বারবার। এমন পরিস্থিতিতেই ক্ষমতায় বসলেন বাইডেন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম করোনার অস্তিত্ব শনাক্ত হয়। এরপর তা ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বজুড়ে।

জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটি জানিয়েছে, করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ আমেরিয়ায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে চার লাখ ৬০ হাজার মানুষের। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় আড়াই কোটি।