ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিডনি টেস্ট ড্র

নিউজ ডেস্ক: দাঁতে-দাঁত লাগিয়ে উইকেটে টিকে থেকে সিডনি টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দারুন এক ম্যাচ ড্র করেছে ভারতের ব্যাটসম্যানরা। তবে এটি ড্র হিসেবে দেখছেন না ভারতের অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে। তার চোখে এই ড্র, জয়ের সমান।

জয়ের জন্য ৪০৭ রানের লক্ষ্যে চতুর্থ দিন খেলতে নেমে ৯৮ রানে ২ উইকেট তুলেছিলো ভারত। দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও শুভমান গিলকে হারিয়েছিলো টিম ইন্ডিয়া। হার এড়াতে আজ, ম্যাচের পঞ্চম ও শেষ দিন উইকেটে টিকে থাকাই মূল লক্ষ্য ছিলো ভারতের। সেই লক্ষ্য নিয়ে বিশ্বসেরা বোলিং অ্যাটাকের বিপক্ষে আজ খেলতে নামে ভারত।
দিনের শুরুতেই অধিনায়ক রাহানে ফিরে যান। তখনও ম্যাচ জিততে ৩০৯ রানের প্রয়োজন ছিলো ভারতের। এরপর ভারতকে লড়াইয়ে ফেরান উইকেটরক্ষক ঋসভ পান্থ ও চেতেশ্বর পূজারা। পান্থ ৯৭ ও পূজারা ৭৭ রান করেন।

পান্থ-পূজারার ফিরে যাবার পর ম্যাচ বাঁচানো নিয়ে চিন্তায় পড়ে ভারত। তবে ষষ্ঠ উইকেটে দুর্দান্ত এক জুটি গড়েন হনুমা বিহারি ও রবীচন্দ্রন অশ্বিন। রানের চেয়ে উইকেটে টিকে থাকার অবিশ্বাস্য এক লড়াইয়ে জয়ী হস তারা ।

হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি নিয়ে বিহারি ১৬১ বলে ২৩ ও পাঁজরের ইনজুরি নিয়ে ১২৮ বলে ৩৯ রান করেন অশ্বিন। দু’জনে ষষ্ঠ উইকেটে ২৫৬ বল খেলে ম্যাচ ড্র’তে পরিণত করেন। রান যোগ করেছেন ৬২টি। শেষ পর্যন্ত এই ইনিংসে ৫ উইকেটে ৩৩৪ রান করে ভারত, ম্যাচটি হয় ড্র।

ব্রিসবেন টেস্টের আগে চার ম্যাচের সিরিজে ১-১ সমতা বিরাজ করছে।

রাহানে বলে, ‘এই ড্র টেস্ট ম্যাচ জয়ের মতই দুর্দান্ত ছিলো। আপনি যখন বিদেশে এসে এমন ধরনের ম্যাচ খেলেন, তখন এটি বিশেষ কিছুই। যা জয়ের মতোই দুর্দান্ত।’

এমন দুর্দান্ত লড়াইয়ে সন্তুস্ট রাহানে। তিনি বলেন, ‘আজ সকালে আমাদের আলোচনা বিষয় ছিলো, নিজেদের দেখানো এবং শেষ পর্যন্ত লড়াই করা। ফলাফল নিয়ে ভাবার আগ্রহ ছিলো না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা বিশেষ করে আজ যেভাবে লড়াই করেছি তাতে আমি খুবই খুশি। এমনকি প্রথম ইনিংসে যখন অস্ট্রেলিয়া ২ উইকেটে ২শ রান করে এবং শেষ পর্যন্ত তাদের ৩৩৮ রানে অলআউট করতে পারি, সেটি সত্যিই ভালো ছিলো।’

বিহারি-অশ্বিনের আগে পান্থের দুর্দান্ত ব্যাটিং দলের জন্য বড় প্লাস পয়েন্ট ছিলো বলে মনে করেন রাহানে।

বিহারির আগে পান্থকে ব্যাটিংএ পাঠানো হয়েছিলো। পূজারা উইকেটে থাকায়, ডান-হাতি ও বাঁ-হাতি কম্বিনেশনের কারনেই এমন পরিকল্পনা নেয়া হয়।
রাহানে বলেন, ‘আমাদের এমনই কৌশল ছিলো এবং এটি কাজে লেগেছে। উইকেটে গিয়ে পাল্টা আক্রমনের জন্য পান্থের প্রশংসা করতেই হবে। তার খেলা ইনিংসটি দেখতে দারুন লেগেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা জানি, যেকোন পরিস্থিতিতে সে আমাদের ম্যাচ জেতাতে পারে। আমাদের সেই বিশ্বাস আছে এবং আমি মনে করি, সে উন্নতি করছে। এমনকি বিহারিও দারুন ব্যাট করেছে। দুভার্গ্যজনকভাবে শেষক’টি ম্যাচে বড় স্কোর করতে পারেনি বিহারি। কিন্তু আজ তার ইনিংসটি খুবই স্পেশাল। অনুপ্রেরণা-রানের জন্য ক্ষুধা দেখাতে, দলের প্রয়োজনে যা করেছে, তা সত্যিই ভালো ছিলো। মাঠের মধ্যে আমরা তার এমন চরিত্রই প্রত্যাশা করি।’

সূত্র. বাসস

ঢাকানিউজ২৪ডটকম