নভেম্বরে নারী ও শিশুদের ওপর নির্যাতন বেড়েছে

নিউজ ডেস্ক: প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রকাশিত সংবাদ অনুসারে ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে মোট ৩৫৩ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার হয়েছে তন্মধ্যে ১৮ জন গণধর্ষণসহ মোট ১৫৩ জন ধর্ষণের শিকার হয়েছে। তার মধ্যে ৯৪ জন কন্যাশিশু ধর্ষণের শিকার এবং ৭ জন কন্যাশিশু গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। এছাড়া ৭ জন শিশুসহ ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে ১৫ জনকে। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের পাঠানো এক প্রেসনোটে এ তথ্য দেয়া হয়েছে।

প্রতিবেদনের বলা হয় , শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছে ৫ জন তার মধ্যে শিশু ৩ জন। ৬ জন শিশুসহ ৭ জন যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে। এসিডদগ্ধের শিকার হয়েছে ৪ জন শিশু এবং এসিডদগ্ধের কারণে মৃত্যু ১ জন। অগ্নিদগ্ধের শিকার হয়েছে ৪ জন, তার মধ্যে ২ জনের মৃত্যু
হয়েছে।

উত্ত্যক্তকরণের শিকার হয়েছে ৭ জন। শিশু অপহরণের ঘটনা ঘটেছে মোট ১১ জন। পাচারের শিকার হয়েছে ৫ জন তার মধ্যে শিশু পাচার করা হয়েছে ১ জন। বিভিন্ন কারণে ১২ জন শিশুসহ ৩৮ জনকে হত্যা করা হয়েছে। এছাড়া ৫ জনকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। যৌতুকের কারণে নির্যাতন হয়েছে ৯ জন, তার মধ্যে ৪ জন যৌতুকের কারণে হত্যা হয়েছে।

শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে ৪ জন শিশুসহ মোট ১১ জন। বিভিন্ন নির্যাতনের কারনে ৫ জন শিশুসহ আত্মহত্যা করেছে ১৩ জন এবং ১২ জন শিশুসহ ৪৩ জনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বাল্যবিবাহ সংক্রান্ত ঘটনা ঘটেছে ১৪ টি। সাইবার ক্রাইম অপরাধের শিকার ১ জন শিশুসহ ৩ জন।

প্রসঙ্গত,১৩ টি দৈনিক জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত ঘটনার তথ্যের ভিত্তিতে সংরক্ষিত নভেম্বর ২০২০ এর নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের সংখ্যা।

পত্রিকার নাম: The Independent, The Daily Star, New Age, The Daily Observer,দৈনিক
ইত্তেফাক, সংবাদ, প্রথম আলো, দৈনিক জনকন্ঠ, ভোরের কাগজ, যুগান্তর, সমকাল, দৈনিক
বাংলাদেশ প্রতিদিন, দৈনিক কালের কণ্ঠ।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/এসডি