মেয়েসহ মেহবুবা মুফতি আবারও গৃহবন্দী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতিকে মুক্তি দেওয়ার প্রায় দেড় মাস পর  আবারও তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার মেয়ে ইলতিজা মুফতিকেও গৃহবন্দী করা হয়েছে।

শুক্রবার সকালে পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (পিডিপি) নেত্রী মেহবুবা নিজের টু্টটে খবরটি নিশ্চিত করেছেন। উপত্যকা জেলা উন্নয়ন কাউন্সিল (ডিডিসি) নির্বাচনের আগ মূহুর্তে তাকে আটক করা হয়।

জাতীয় তদন্ত সংস্থা (এনআইএ) সন্ত্রাসবাদে জড়িত থাকার অভিযোগে পিডিপি নেতা ওয়াহিদ পারাকে সম্প্রতি গ্রেপ্তার করা হয়। ওয়াহিদের পরিবারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করার জন্য মেহবুবাকেও আটক করা হয় বলে অভিযোগ করা হয়।

কাশ্মীরি এই নেত্রী তার টুইটার লিখেছেন, আমাকে আবারও অবৈধভাবে আটক করা হয়েছে। গত দু’দিন ধরে জম্মু ও কাশ্মীর প্রশাসন ওয়াহিদকে পুলওয়ামায় তাঁর পরিবারের সাথে দেখা করতে দেয়নি। বিজেপির মন্ত্রীরা এবং তাদের অনুসারীদের অবাধে ঘোরাঘুরি করার অনুমতি দেওয়া হলেও নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে শুধু আমাকে আটক রাখা হয়েছে। 

মেহবুবা জানান, ওয়াহিদের পরিবারের সাথে দেখা করার চেষ্টা করার জন্য তার মেয়েকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। “তাদের নিষ্ঠুরতার কোনও সীমা নেই,” তিনি লিখেছেন, ভিত্তিহীন অভিযোগে ওয়াহিদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

কাশ্মীরে বিরোধী শিবিরের দাবি, ওয়াহিদ মেহবুবার পরিচিত। তারা অভিযোগ করে, দক্ষিণ কাশ্মীরে পিডিপির ঘাঁটি শক্তিশালী করতে তারা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। তিনি পুলওয়ামা থেকে জেলা পরিষদ নির্বাচনের জন্যও মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। যার কারণে তাঁকে বিজেপি শাসিত কেন্দ্রীয় সরকারের ক্রোধের মুখোমুখি হতে হয়েছে।

গত বছরের আগস্টে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের সময় যে তিনজন মুখ্যমন্ত্রীদের গ্রেপ্তার করা হয় তার মধ্যে মেহবুবাও ছিলেন।