টাঙ্গাইলে ক্লিনিক মালিককে গলাকেটে হত্যা

নিউজ ডেস্ক:    টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে জনসেবা ক্লিনিকের মালিক আনিসুর রহমান আনিসকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার বিকেলে দেলদুয়ারের লাউহাটি ইউনিয়নের হেরেন্দ্রড়াধলেশ্বরী নদীর সংযোগ খাল থেকে বস্তাবন্দি অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আনিসের স্ত্রী মোরছানা আক্তার বলেন, সে দীর্ঘদিন বিদেশে ছিল। কয়েক বছর আগে দেশে এসে লাউহাটি বাজারে ক্লিনিক করে। এর সঙ্গে তিনি জমি কেনা-বেচার ব্যবসাও করতো। সোমবার দুপুরে ক্লিনিকে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়েছিল। আর ফেরেনি।

তিনি বলেন, রাতে কোনো কাজ আছে বলে সে বাড়িতে ফেরেনি, এমনটা মনে করে ওইদিন আর আমরা কোনো খোঁজাখুঁজি করিনি। তবে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু ফোনে পাওয়া যায়নি। মঙ্গলবার টাঙ্গাইল আদালতে আমাদের দুজনের নামেই একটি মামলার হাজিরা থাকায় আমি সেখানে যাই। বিকেলে শুনি বাড়ির পাশের খাল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে জানান মোরছানা।

দেলদুয়ার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ছায়েদুল ইসলাম জানান, হেরেন্দ্রাড়া ধলেশ্বরী নদীর সংযোগ খালে বস্তাবন্দি অবস্থায় একটি মরদেহ দেখতে পায় এলাকাবাসী। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে। কেন, কী কারণে এ হত্যাকাণ্ড, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ঘটেছে পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে এবং হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।