সাবেক ডেপুটি স্পিকার শওকত আলী আর নেই

নিউজ ডেস্ক:    জাতীয় সংসদের সাবেক ডেপুটি স্পিকার ও আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আসামি বীর মুক্তিযোদ্ধা কর্নেল (অব.) শওকত আলী মারা গেছেন। সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)। তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

জাতীয় সংসদের পরিচালক (গণসংযোগ) মো. তারিক মাহমুদ জানিয়েছেন, শওকত আলী কিডনি, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ ও নিউমোনিয়া রোগে ভুগছিলেন। এসব কারণে বেশ কিছুদিন ধরে সিএমএইচে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি। গত ৫ নভেম্বর গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে সিএমএইচে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়।

শওকত আলীর জন্ম জন্ম ১৯৩৭ সালের ২৭ জানুয়ারি শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার দিঘিরপাড় গ্রামে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৫৮ সালে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন এবং স্বাধীন বাংলা আন্দোলনে যুক্ত হন। ক্যাপ্টেন পদে চাকরিরত অবস্থায় ১৯৬৮ সালের ১০ জানুয়ারি রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় গ্রেপ্তার হন।

১৯৬৯ সালে বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে যে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা হয়েছিল, তাতে শওকত আলীকেও আসামি করা হয়। আগরতলা মামলার ২৬ নম্বর অভিযুক্ত ছিলেন তিনি।

তিনি মুক্তিযুদ্ধে যোগ দেন এবং মাদারীপুর-শরীয়তপুরে যুদ্ধ করেন। স্বাধীনতার পর সেনাবাহিনীতে পুনর্বহাল হন। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডের পর তাকে বাধ্যতামূলক অবসর দেওয়া হয়। অবসরের পর তিনি আওয়ামী লীগে যোগ দেন।

শওকত আলী মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এবং ৭১ ফাউন্ডেশনের প্রধান উপদেষ্টা ছিলেন।

অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল শওকত আলী শরীয়তপুর-২ আসন থেকে পাঁচবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০৯ থেকে ২০১৪ সাল তিনি জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকারের দায়িত্ব পালন করেন।