অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার নিখোঁজ সাংবাদিক সরওয়ার

নিউজ ডেস্ক : চট্টগ্রামে নিখোঁজের চারদিনের মাথায় সাংবাদিক গোলাম সরওয়ারকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার রাত ৮টার দিকে সীতাকুণ্ডের ছোট কুমিরা গরুর বাজার সংলগ্ন একটি খালের পাশে তাকে পাওয়া যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীর।

কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীর জানান, নিখোঁজ সাংবাদিক গোলাম সরওয়ারকে অজ্ঞান অবস্থায় সীতাকুণ্ড থেকে পাওয়া গেছে। পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে যাচ্ছে। বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

ঘটনাস্থলে থাকা সমকালের সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি জানান, সীতাকুণ্ডের ছোট কুমিরা গরুর বাজার সংলগ্ন একটি খালের পাশে কে বা কারা সাংবাদিক গোলাম সরওয়ারকে ফেলে গেছে। স্থানীয়রা অজ্ঞান অবস্থায় তাকে পাওয়ার পর পুলিশকে খবর দেন। এসময় তার শরীরে ছিল একটি স্যান্ডো গেঞ্জি আর অন্তর্বাস। কিছুক্ষণ পর পর একটু জ্ঞান ফিরে আসলেই সাংবাদিক গোলাম সরওয়ার শুধু বলতে থাকেন ‘আমি আর নিউজ করব না; আমাকে তোমরা মেরো না-আমাকে ছেড়ে দাও।’

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ইনচার্জ (তদন্ত) সুমন বণিক বলেন, ‘সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে স্থানীয় কয়েকজন মানুষ একজনকে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। পরে পরিচয় খুঁজতে গিয়ে তিনি যে নিখোঁজ হওয়া সাংবাদিক গোলাম সরওয়ার সেটি নিশ্চিত হই। এ ঘটনায় চট্টগ্রাম নগরের কোতোয়ালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি হওয়ায় আমরা তাৎক্ষণিক থানার ওসিকে খবর দিই। থানা থেকে একটি টিম রাতে এসে পৌঁছেছে। পরবর্তী যাবতীয় কাজ তারাই দেখভাল করবেন।’

গত ২৯ অক্টোবর সকাল থেকে নিখোঁজ হন সাংবাদিক গোলাম সরওয়ার। ওইদিন রাতে কোতোয়ালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন আজকের সূর্যোদয়’র সহকারী সম্পাদক ও গোলাম সরওয়ারের সহকর্মী জুবায়ের সিদ্দিকী।

গোলাম সরওয়ার আজকের সূর্যোদয় চট্টগ্রাম অফিসের স্টাফ রিপোর্টার ও অনলাইন পোর্টাল সিটি নিউজ বিডি ডট কমের নির্বাহী সম্পাদক ও প্রকাশক হিসেবে কর্মরত আছেন। তার নিখোঁজের পর থেকে অক্ষত অবস্থায় তাকে ফিরে পেতে বিক্ষোভ সমাবেশসহ নানা কর্মসূচি পালন করে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে)। সর্বশেষ রোববার সকালে নিখোঁজ সাংবাদিক গোলাম সরওয়ারকে উদ্ধারের দাবিতে সিএমপি কমিশনার কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে সিইউজেসহ চট্টগ্রামের সাংবাদিক সমাজ।