যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি নিয়ে আলোচনা শুরু

নিউজ ডেস্ক:    যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তির (এফটিএ) সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা শুরু করেছে বাংলাদেশ। বুধবার রাতে সফররত যুক্তরাষ্ট্রের উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী স্টিফেন বিগানের সঙ্গে রাজধানীর একটি হোটেলে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। তিনি আরও জানান, আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে থাকা বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি রাশেদ চৌধুরীকেও ফেরত চেয়েছে বাংলাদেশ।

কভিড-১৯ মোকাবিলা, অর্থনীতি পুনরুদ্ধার এবং টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়ন প্রচেষ্টায় যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের অংশীদারিত্ব ও যৌথ সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করতে বিকেলে ঢাকায় পৌঁছেছেন স্টিফেন বিগ্যান। ভারতের নয়াদিল্লি থেকে ঢাকায় পৌঁছেন তিনি। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। এর আগে সকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে তিনি বৈঠক করবেন।

প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার বলেন, কভিড-১৯ মহামারি-পরবর্তী অর্থনীতি পুনরুদ্ধার কর্মসূচির অংশ হিসেবে বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র এফটিএ সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি নিয়ে একটি আলোচনার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী উৎসাহিত করেছেন। এ ছাড়া তৈরি পোশাক খাত, পাট ও পাটজাত পণ্য, জাহাজ তৈরি, আইসিটি, ফার্মাসিউটিক্যালস, শু অ্যান্ড লেদার এবং আইটিকেন্দ্রিক সেবাখাতে বিনিয়োগ ও অংশীদারিত্বের বিষয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে জানান শাহরিয়ার আলম।

আলোচনায় মহামারি মোকাবিলায় বড় পরিসরে টিকা উৎপাদন শুরু হলে বাংলাদেশও যেন পেতে পারে, সে বিষয়ে সফররত উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী আশ্বস্ত করেছেন বলেও জানান শাহরিয়ার আলম।

এর আগে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্টিফেনকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন। আজ সকালে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেনের সঙ্গে বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রের ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজি (আইপিএস) বিষয়ে আলোচনা হবে। এ বৈঠকে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে যুক্তরাষ্ট্রের জোরালো সমর্থন চাইবে বাংলাদেশ। এ ছাড়া বাংলাদেশের অবকাঠামো উন্নয়নে যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগ, যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে তৈরি পোশাক রপ্তানিতে শুল্ক্কমুক্ত সুবিধা এবং ভিসা প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনা হবে। আগামীকাল শুক্রবার সকালে ঢাকা ত্যাগ করবেন যুক্তরাষ্ট্রের উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী।