প্রতিটি জেলায় হবে আইটি ইনকিউবেশন ও ট্রেনিং সেন্টার: পলক

নিউজ ডেস্ক:   তথ্য প্রযুক্তিখাতে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে দেশের প্রতিটি জেলায় আইটি ইনকিউবেশন ও ট্রেনিং সেন্টার স্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

বৃহস্পতিবার রংপুরের পীরগঞ্জে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী ঢাকা থেকে ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিত্তিপ্রস্তরের ফলক উন্মোচন করেন।

তথ্য প্রযুক্তি খাতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির জন্য দেশের আটটি স্থানে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন করছে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ।

এরই অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম, সিলেট, রংপুর, নাটোর, কুমিল্লা, নেত্রকোণা, বরিশাল ও মাগুরায় স্থাপন করা হচ্ছে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার।

বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে প্রায় ৫৩৩ কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্পের কাজ ২০১৭ সালে শুরু হয়।

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, “রংপুরবাসীর উন্নয়নে সরকার নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। ‘শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার’ থেকে ট্রেনিং নিয়ে এখানকার তরুণ-তরুণীরা নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে, অনেক মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। এখন থেকে আর চাকরির পেছনে ছুটতে হবে না, নিজেরাই উদ্যোক্তা হয়ে মানুষকে চাকরি দেবে।”

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের বিভিন্ন প্রকল্প ও কর্মসূচির মাধ্যমে ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত ১৬ হাজার জনকে আইটির বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। ১৩ হাজারের বেশি তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

চট্টগ্রামে সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক, শেখ হাসিনা ইন্সটিটিউট অব ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি এবং আরো ১১টি জেলায় শেখ কামাল আইটি ইনকিউবেটর ও ট্রেনিং সেন্টার স্থাপনের কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী পর্যায়ক্রমে দেশের প্রতিটি জেলায় আইটি ইনকিউবেশন ও ট্রেনিং সেন্টার স্থাপন করা হবে বলে জানান পলক।

তিনি বলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে নতুন নতুন উদ্যোক্তা তৈরি করে শিক্ষায়তন এবং আইটি ইন্ডাস্ট্রির মধ্যে সেতুবন্ধন প্রতিষ্ঠা করা হবে এই প্রকল্পের মাধ্যমে। তাতে আইটি বা আইটিইএস খাতে বাংলাদেশের যুব সমাজের আত্ম-কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

রংপুর জেলা প্রশাসক মো. আসিব আহসানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. তাজিমুল ইসলাম শামীম এবং বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।