আজ বিশ্ব নদী দিবস

নিউজ ডেস্ক:   আজ বিশ্ব নদী দিবস। নদী রক্ষায় অনেক দেশে দিবসটি পালিত হচ্ছে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য, ‘ভাইরাসমুক্ত বিশ্বের জন্য চাই দূষণমুক্ত নদী।’ এবার নদী দিবসে সারাবিশ্বে প্রায় এক হাজার কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

১৯৮০ সাল থেকে প্রতিবছর সেপ্টেম্বর মাসের শেষ রোববার বিশ্ব নদী দিবস হিসেবে পালন করতে শুরু করে কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়া ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি। যার আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়েছিল বিসি রিভারস ডে পালন দিয়ে। ১৯৮০ সালে কানাডার খ্যাতনামা নদীবিষয়ক আইনজীবী মার্ক অ্যাঞ্জেলো দিনটি ‘নদী দিবস’ হিসেবে পালনের উদ্যোগ নিয়েছিলেন। বিসি রিভারস ডে পালনের সাফল্যের হাত ধরেই তা আন্তর্জাতিক রূপ পায়।

২০০৫ সালে জাতিসংঘ নদী রক্ষায় জনসচেতনতা তৈরি করতে ‘জীবনের জন্য জল দশক’ ঘোষণা করে। সে সময়ই জাতিসংঘ দিবসটি অনুসমর্থন করে। এরপর থেকেই জাতিসংঘের বিভিন্ন সহযোগী সংস্থা দিবসটি পালন করছে, যা দিন দিন বিস্তৃত হচ্ছে। বাংলাদেশে ২০১০ সাল থেকে এ দিবস পালিত হচ্ছে। দূষণে-দখলে মৃতপ্রায় নদী বাঁচাতে রোববার দেশের বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

নদ-নদী রক্ষায় দীর্ঘমেয়াদি সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেছে সরকার। ২৫ বছর মেয়াদি ৪০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণের পাশাপাশি অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত রাখা হয়েছে। সচেতনতা বাড়াতে নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণও শুরু হয়েছে।

নদী অধিকার মঞ্চের সদস্য সচিব শমশের আলী বলেন, একাডেমিক আলোচনায় নদীকে লাইফ লাইন বলি, নদীকে বলি পরিবেশ-প্রতিবেশের একটা অবধারিত উপাদান, নদী হলো সম্পদ। কিন্তু প্রশাসনিকভাবে নদী শাসন ও দখল-দূষণের বিষয়ে কথা বলা হয়। নদী থেকে কতটুকু দূরত্ব বজায় রেখে শিল্প কারখানা হবে তাও ঠিক করা হয়নি। পৃথিবীর অন্যান্য দেশে নদী থেকে অন্তত এক কিলোমিটারের মধ্যে কোনো কলকারখানা স্থাপন করা যায় না। আমাদের দেশে নদীর পাড়েই সব হচ্ছে।