সব রাষ্ট্রই যেন করোনার ভ্যাকসিন পায়: রাষ্ট্রপতি

নিউজ ডেস্ক:   রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে পরিচয়পত্র পেশ করেছে বাংলাদেশে সুইডেনের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত আলেকজান্দ্রা বার্গ বন লিনডে, স্পেনের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত ফ্রান্সিসকো ডি অসিস বেনেটিজ সালাস এবং নরওয়ের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত এসপেন রিকতার সেভেন্ডসেন।

বুধবার বঙ্গভবনে পরিচয়পত্র পেশ করেন তারা। রাষ্ট্রপতি নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূতদের স্বাগত জানিয়ে বলেন, সুইডেন, স্পেন ও নরওয়ের সাথে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে বাংলাদেশ অত্যন্ত গুরুত্ব দেয়। রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদীন এতথ্য জানান। খবর বাসসের

রাষ্ট্রপতি বলেন, বাংলাদেশ তিন দেশের সাথে পারস্পরিক সম্পর্ককে বাণিজ্য-বিনিয়োগসহ বহুপাক্ষিক ক্ষেত্রে সম্প্রসারণে আগ্রহী। দায়িত্ব পালনকালে রাষ্ট্রদূতগণ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক সম্প্রসারণের প্রতিটি ক্ষেত্রকে কাজে লাগাতে আন্তরিক প্রয়াস চালাবেন বলে রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন।

আবদুল হামিদ রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহযোগিতার জন্য সুইডেন, স্পেন ও নরওয়ে সরকারকে ধন্যবাদ জানান। তিনি আশা প্রকাশ করেন, রোহিঙ্গাদের সম্মানজনক প্রত্যাবর্তনে ভবিষ্যতেও তাদের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে এবং এ ব্যাপারে তারা মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখবেন।

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস সংক্রমণে হতাহতের ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন, বিশ্ববাসী সম্ভাব্য স্বল্পতম সময়ে সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় মহামারির হাত থেকে রক্ষা পাবে। তিনি করোনার ভ্যাকসিন ধনী-গরিব নির্বিশেষে সকল রাষ্ট্রই যাতে পেতে পারে সে জন্য উন্নত দেশ ও বহুজাতিক সংস্থাগুলোকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ স্প্যানিশ ভাষায় অনুবাদে সহযোগিতার জন্য স্পেন সরকারকে ধন্যবাদ জানান। নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূতদের দায়িত্ব পালনকালে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরো জোরদার হবে রাষ্ট্রপতি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূতগণ বলেন, তারা বাংলাদেশের সাথে স্ব স্ব দেশের বিদ্যমান সম্পর্ক জোরদারে সার্বিক প্রয়াস অব্যাহত রাখবেন। রাষ্ট্রদূতগণ দায়িত্ব পালনে রাষ্ট্রপতির সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম শামিম উজ জামান, রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন এবং সচিব (সংযুক্ত) মো. ওয়াহিদুল ইসলাম খান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।