কমরেড মুস্তাফা হুসেনের জীবন পুঞ্জি – সাইফ শোভন

পিতা : মরহুম মোফাজ্জল হোসেন।
মাতা : মরহুম আফিয়া খাতুন।
জন্ম : ১৫ জুলাই ১৯৪২ সন।
১৯৪২ সনের ১৫ জুলাই ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও থানার শাকচুরা গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন। তার শৈশবকাল কাটে ময়মনসিংহ শহরে। তার পিতা মরহুম মো: মোফাজ্জল হুসেন ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক অফিসে চাকুরি করা অবস্থায় মুস্তাফা হুসেন স্থানিয় রাজবারি স্কুলে ২য় শ্রেণীতে ভর্তি হন। পরবর্তিতে ৫ম শ্রেণীতে মৃত্যুঞ্জয় স্কুলে ভর্তি হন।
১৯৫৮ সনে মরহুম মুস্তাফা হুসেন মেট্রিকুলেশন পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তির্ন হন।
১৯৫৯ সনে মরহুম মুস্তাফা হুসেন স্থানীয় প্রশাসক অফিসে চাকুরী নেন।
১৯৬১ সনে ময়মনসিংহের নাসিরাবাদ কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তির্ন হন।
প্রাইভেট এবং নৈশ কালীন সময়ে তিনি পড়ালেখা করেন।
১৯৬১ সনে তিনি কমিউনিষ্ট পার্টির সংগে যুক্ত হন। এবং গোপনে তিনি পার্টির কাজ চালিয়ে যান।
১৯৬৪ সনে তিনি স্থানীয় আনন্দ মোহন কলেজ থেকে বিএ ডিগ্রি অর্জন করেন। পরবর্তিতে তিনি চাকুরীরত অবস্থায় এম এ এবং এল এল বি ডিগ্রি অর্জন করেন।
১৯৬৫ সনে সরকারী চাকুরীতে প্রবেশ করেন। পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের থানা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা পদে প্রথম কিশোরগঞ্জের তারাইল থানায় যোগদান করেন।
১৯৬৭ সনের ২রা ডিসেম্বর তারিখে তিনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তার স্ত্রী সুলতানা আখতার আফরোজা। তার প্রথম সন্তান সাইফউদ্দিন শোভন ১৯৬৮ সালের ৭ আগষ্ট জন্ম গ্রহন করেন। ১৯৭১ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর তার ২য় সন্তান আবু সাইদ মো: সুমন জন্ম গ্রহন করেন। তার একমাত্র কন্যা হাসিনা আক্তার শুভ্রা জন্ম গ্রহন করেন ১৯৭৩ সনের ২০ জানুয়ারী এবং তার চতুর্থ সন্তান সোহেল মো: সুধা জন্ম গ্রহন করেন ১৯৭৬ সনের ৮ ডিসেম্বর।
১৯৬৫ – ১৯৮৫ সাল পর্যন্ত থানা কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
১৯৮৬ সনে সহকারী পরিচালক (জামালপুর জেলা) পদে অধিষ্টিত হন। ঐ সময় তিনি ইন্দোনেশিয়া, থাইলেন্ড এবং সিংগাপুর এ প্রশিক্ষণের জন্য যান।
১৯৮৯ সনে উপ – পরিচালক (নোয়াখালী জেলা) পদে অধিষ্টিত হন।
১৯৯৪ সনে উপ – পরিচালক (ঢাকা বিভাগ, অডিট) পদে অধিষ্টিত হন। সেখানে কৃতিত্বের সাথে কাজ করার পর আই, ই, এম ইউনিটে যোগদান করেন। আই ই এম ইউনিটে প্রায় ৮ বৎসর পরিচালক ও উপ পরিচালক হিসেবে কাজ করেন। বিন্তু তার কোন প্রমোশন হয় নাই। এবং তার কোনো বেড রেকর্ড ও ছিল না। তিনি সৎ ভাবে জীবন যাপন করতেন। তার রিটায়ারমেন্টের পর তার এক জুনিয়র উপ পরিচালকের প্রমোশন হয়।
১৯৯৯ সনে তিনি সরকারী চাকুরী থেকে অবসর গ্রহন করেন। অবসর গ্রহনের তারিখ ১৪ জুলাই ১৯৯৯। তার অবসর কালীন সময়ে পদবী ছিল উপ পরিচালক (পি এম), আই ই এম ও প্রোগ্রাম ম্যানেজার একীভূত বিসিসি ইউনিট। তিনি সর্বমোট ৩৪ বৎসর ৯ দিন চাকুরী করেন। তার দীর্ঘ চাকুরী জীবনে তিনি গোপনে কমিউনিষ্ট পার্টির সদস্য হিসেবে কাজ করে গেছেন। তার এই দীর্ঘ চাকুরী তে কোন প্রকার অসৎ কাজের সংস্পর্শে আসেননি।
অবসর গ্রহনের পর জনাব মুস্তাফা হুসেন বাংলাদেশের ভূমি ব্যবস্থার উপর একটি গবেষণাধর্মি কাজে আত্ম নিয়োগ করেন। পাশাপাশি তিনি সমকালীন বিষয়ে লেখালেখি করতেন। তার লেখা বিভিন্ন প্রবন্ধ ত্রৈমাসিক আত্মপ্রতিকৃতি সহ বিভিন্ন দৈনিকে প্রকাশিত হয়। তিনি শ্রমজীবী দের সংগঠিত করার কাজেও আত্ম নিয়োগ করেছিলেন। মৃত্যুও পুর্বে তিনি গণতান্ত্রিক বিপ্লব ও গণতান্ত্রিক আন্দোলন নামে একটি বই প্রকাশ করেছিলেন।
এ ছাড়া তিনি এশিয়াটিক সোসাইটি থেকে প্রকাশিত বিশ^কোষে লিখেছেন। শিক্ষ্রা উপর শিক্ষাকোষে তিনি বহু প্রবন্ধ লিখেছেন।

সাইফ শোভন, চিফ রিপোর্টার,ঢাকা নিউজ২৪.কম