লাতিন আমেরিকায় সব কিছু খুলে দেয়া ঠিক হয়নি

নিউজ ডেস্ক:    করোনাভাইরাস পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণের আগেই লাতিন আমেরিকায় সব কিছুই আগের মতো খুলে দেয়া হয়েছে। কাজটি ঠিক হয়নি বলে বুধবার সতর্ক করে দিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আঞ্চলিক পরিচালক কারিসা এটিয়েন্নে।

ওয়াশিংটন থেকে প্যান আমেরিকান হেলথ অর্গানাইজেশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে তিনি বলেন, গত দুই সপ্তাহে কলম্বিয়া ও ভেনেজুয়েলার সীমান্তবর্তী অঞ্চলে মহামারিটির প্রকোপ বেড়েছে। মেক্সিকোর কিছু অংশ, ইকুয়েডর, বলিভিয়া ও কোস্টা রিকায় মৃত্যুহার বেড়েছে। আর্জেন্টিনায়ও একই অবস্থা। খবর আল জাজিরার।

এটিয়েন্নে বলেন, সারা বিশ্ব এখনো করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছে। একটি নিরাপদ ও কার্যকর ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে। যা কিছু ফল পাওয়া যাচ্ছে, তা এখনো প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। এ অবস্থায় আগের জীবনযাত্রায় ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়াটা ঠিক হয়নি। এটা হলো প্রাণঘাতী এই ভাইরাসকে আরো বেশি ছড়িয়ে পড়ার সুযোগ করে দেয়া।

দেশগুলোতে পর্যটনের বিষয়ে সরকারগুলোকে আরো বেশি হুঁশিয়ার ও দায়িত্বশীল হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, বিশেষ করে ক্যারিবীয় অঞ্চলে পর্যটন সেবা এখনই চালু করা উচিত নয়। কারণ সে অঞ্চলের অনেক দেশের করোনা মোকাবেলার অভিজ্ঞতা নেই।

সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, লাতিন আমেরিকার দেশগুলোতে এ পর্যন্ত ৮৪ লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৩ লাখ ১৪ হাজার। পৃথিবীর অন্য যে কোনো অঞ্চলের চেয়ে এই সংখ্যা বেশি।