বাংলাদেশকে লক্ষাধিক ডোজ টিকা বিনামূল্যে দেবে চীন

নিউজ ডেস্ক :   বাংলাদেশকে করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য টিকার এক লাখ ১০ হাজার ডোজ বিনামূল্যে দেবে চীন। শুক্রবার দ্য নিউইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশের (আইসিডিডিআর,বি) নির্বাহী পরিচালক জন ডি ক্লেমেন্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে করোনার টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল পরিচালনা করছে বেইজিংভিত্তিক সিনোভ্যাক বায়োটেক। ঢাকায় চার হাজার ২০০ জনের ওপর তাদের তৈরি টিকার পরীক্ষা চলছে। এই পরীক্ষায় চীনকে সহযোগিতা করছে আইসিডিডিআর,বি।

এতে আরও বলা হয়, ১৭ কোটি জনগণের দেশে টিকা দেওয়ার এই সংখ্যাটা অবশ্য খুবই নগণ্য। টিকার পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করলেও বাংলাদেশিদের আশঙ্কা, দেশের সব মানুষের জন্য টিকা নিশ্চিত করতে হয়তো মূল্য পরিশোধ করতে হবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাকোলজির অধ্যাপক সায়েদুর রহমান বলেন, যদি বিশ্বের কোনো ব্যক্তি পেটেন্ট রাইটস এবং লাভের জন্য করোনার টিকা থেকে বঞ্চিত হয়, তাহলে সেটি হবে এই শতাব্দীর সবচেয়ে বড় অন্যায়।

নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, এশিয়া থেকে আফ্রিকা পর্যন্ত টিকার মাধ্যমে চীন বন্ধুত্ব বাড়াতে চাইছে। ফিলিপাইনকে দ্রুত টিকা সরবরাহ করা হবে এবং লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান অঞ্চলের দেশগুলোকে করোনার ওষুধ কিনতে ১০০ কোটি ডলার ঋণ দিতে যাচ্ছে চীন। দক্ষিণ এশিয়ায় চীনের প্রবণতা নিয়ে সন্দিহান ভারত। তারা বাংলাদেশ ও নেপালকে টিকা সরবরাহের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

তবে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, টিকা সরবরাহের বিষয়ে একচেটিয়া আচরণ করবে না চীন। এ ছাড়া কূটনৈতিক অস্ত্র হিসেবে টিকাকে ব্যবহার করার দাবিও তারা অস্বীকার করেছে।