ইরানের জ্বালানিবাহী চারটি জাহাজ আটক করেছে যুক্তরাষ্ট্র

নিউজ ডেস্ক:   ইরানের বিরুদ্ধে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করায় ভেনেজুয়েলাগামী ইরানের চারটি জ্বালানিবাহী জাহাজ আটক করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে বলা হয়, কোনো রকম বল প্রয়োগ ছাড়াই ইরানের এই জ্বালানিবাহী জাহাজগুলো জব্দ করা হয়েছে। এর বেশি কিছু অবশ্য প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়নি। খবর আল জাজিরার

ইরানকে পরমাণু কার্যক্রম থেকে বিরত রাখার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ চেষ্টার ফল হিসেবে ২০১৫ সালে ইরান বিশ্বের ছয়টি পরাশক্তির সাথে তার পরমাণু কর্মসূচি সংক্রান্ত একটি দীর্ঘমেয়াদি চুক্তিতে আসতে সম্মত হয়। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, চীন এবং রাশিয়া, অর্থাৎ পি ফাইভ প্লাস ওয়ান নামে পরিচিত পরাশক্তিগুলো ছিল ওই চুক্তির বিভিন্ন পক্ষ। কিন্তু চুক্তিটিকে অসম্পূর্ণ বলে দাবি করে ২০১৮ সালে পূর্বসূরি বারাক ওবামার করা ওই চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে নেন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প । এরপর পর ইরানের ওপর একের পর এক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। তবে ভেনেজুয়েলায় নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত হোজেত সুলতানি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের এই দাবি সম্পূর্ণই অসত্য। এটা তাদের মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধেরই একটা অংশ মাত্র। স্প্যানিশ ভাষায় পোস্ট করা টুইটার বার্তায় তিনি বলেন, যদি আটক করা হয়ে থাকে, তবে সেগুলো ইরানের জাহাজ নয়। জাহাজগুলোর মালিক অথবা পতাকার সঙ্গে ইরানের কোনো সম্পর্ক নেই।

তিনি এটাকে যুক্তরাষ্ট্রের অপপ্রচার হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, ট্রাম্প নিজের অপমান ও লজ্জা ঢাকার জন্য এসব প্রচার চালাচ্ছেন।