যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মারা গেছে ২ লাখ মানুষ

 

নিউজ ডেস্ক:গত মার্চ থেকে এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে অন্তত দুই লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। দেশটির সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে নিউ ইয়র্ক টাইমস বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

সংবাদমাধ্যমটির হিসেবে, এই সংখ্যা সরাসরি করোনায় মারা যাওয়া সংখ্যার তুলনায় প্রায় ৬০ হাজার বেশি।

মার্চে করোনা যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণের কেন্দ্র ছিল নিউ ইয়র্ক। পরে মহামারি দেশটির দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে। এর ফলে অসুস্থতায় মৃত্যুর ধরনে অস্বাভাবিক পরিবর্তন এসেছে। এতে এটাই ইঙ্গিত মিলছে যে, সামগ্রিক প্রভাব করোনাসহ মহামারির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অন্যান্য মারা যাওয়া ব্যক্তিদের সংখ্যা সরকারিভাবে গণনায় যথেষ্ট পরিমাণে অবমূল্যায়ন করা হয়েছে।

নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, মৃতের সংখ্যা গণনায় অনেক সময় লেগে যায়। এমনকি অনেক রাজ্য মৃতের সংখ্যা জানাতে সপ্তাহ-মাস পর্যন্ত দেরি করে। 

বিগত বছরগুলোতে মৃতের সংখ্যা বা তথ্য-উপাত্ত পেতে কতোটা দেরি হয়েছে তার ওপর ভিত্তি করে করোনায় মৃত্যুর আনুমানিক সংখ্যা নির্ধারণ করেছে সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন। তবে এই সমন্বয় সত্ত্বেও যদি অতীতের তুলনায় রাজ্যগুলো মৃতের সংখ্যার তথ্য পাঠাতে বিলম্ব করে কিংবা মৃতের সংখ্যার প্রতিবেদনের ধরনে পরিবর্তন এনে থাকে তাহলে করোনায় মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা আরও বেশি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।