হজে নিরাপত্তা রক্ষায় প্রথম নারী পুলিশ

নিউজ ডেস্ক:   ধর্মীয় অনুষ্ঠানে নিরাপত্তার দায়িত্বে কাজ করার অনুমতি দেওয়া হয় সৌদি নারীদের। তবে এবারই প্রথম হজের নিরাপত্তার কাজে নারী পুলিশ কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। মক্কা নগরীতে হজে নিরাপত্তার কাজে নারী পুলিশ মোতায়েন করেছে সৌদি আরব। দেশটির সরকার গত বছরই ঘোষণা করেছে, পুরুষের পাশাপাশি নারীরাও সেনাবাহিনীসহ নিরাপত্তা বাহিনীর কাজে যোগ দিতে পারবে। করোনার কারণে এ বছর কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে হজের আনুষ্ঠানিকতা পালিত হচ্ছে। খবর আরব নিউজের।

আল আখবারিয়া টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রথমবারের মতো হজের নিরাপত্তায় দায়িত্ব পালন করা নারী পুলিশ কর্মকর্তা আফনান আবু হোসেইন বলেন, আমাদের দেশে হজের সময়টা খুবই ব্যস্ত একটা সময়। কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে বুধবার পবিত্র মসজিদ মক্কা থেকে হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। আমরা নিবিড়ভাবে তা পর্যবেক্ষণ করছি।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে এক ব্রিফিংয়ে হজ ও ওমরাহ বিষয়ক অধিদফতরের মহাসচিব সারি আসিরি বলেন, হাজিদের প্রতিটি গ্রুপে একজন করে দলনেতা আছেন, যিনি তাদের সামাজিক নিরাপত্তার বিষয়টি তদারকি করছেন। প্রতিটি গ্রুপের জন্য আলাদা করে চিকিৎসক নিযুক্ত করা হয়েছে, তাদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার জন্য।

অনুমোদন ছাড়া হজে অংশ নিতে গিয়ে বুধবার ২৪৪ জন গ্রেপ্তার হয়েছেন মক্কায়। গ্রেপ্তারের পাশাপাশি এভাবে যারা হজ করতে আসবে, তাদের ১০ হাজার রিয়াল জরিমানাও গুনতে হবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।