হামলা ও হুমকীর প্রতিবাদে দুর্গাপুরে মানববন্ধন

দুর্গাপুর, নেত্রকোনা থেকে সাহাদাত হোসেন কাজল:  নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার সোমেশ্বরী নদীর ইজারাকৃত ৩নং বালু মহালে মারামারি’কে কেন্দ্র করে উপজেলা চেয়ারম্যান জান্নাতুল ফেরদৌসকে হুমকীর প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। ১২ জুলাই রোববার সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ চত্তরে এ মানববন্ধন করা হয়। ৩নং বালু মহাল এলাকায় উপজেলা চেয়ারম্যান এর নিজস্ব রেজিষ্ট্রিকৃত জমিতে রোপণকৃত গাছের চারা ভেঙে জোরপূর্বক ডাইভারশন তৈরি করে অবাধে বালু পরিবহন করায় এলাকার সাধারণ ক্ষতি সাধিত হচ্ছে মর্মে বাড়ি ঘর রক্ষা, সবজি চাষ নস্ট, গাছ-পালা রক্ষার দাবীতে ২০ মিনিট এক মানববন্ধন করে।

মানববন্ধনে বক্তারা দাবী করেন ৩নং বালু মহালের ইজারাদার ও যুবলীগ সভাপতি আবদুল হান্নান ও সাধারণ সম্পাদক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাদ্দাম আকঞ্জির নেতৃত্বে একদল দাঙ্গাবাজ লোক দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ঐ এলাকায় প্রবেশ করে রোপনকৃত গাছের চারা বিনষ্ট করে পুলিশের উপস্থিতিতেই কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে আমাদের উপর এলোপাতারী মারধর ও রামদা দিয়ে কোপাতে শুরু করলে জাকির সরকার ইফতি, সারোয়ার মড়ল মাসুম ও নাজমুল গুরুতর আহত হয়। মারামারির পর্যায়ে স্থানীয়রা দাঙ্গাবাজদের হাত থেকে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আনেন।

এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান এর লোকজন প্রতিবাদ করতে গেলে, উল্টো চেয়ারম্যানকে জড়িয়ে অকথ্য গালিগালাজ, পৌরশহরে আতঙ্ক তৈরী করে, মিথ্যা মামলা দেয়ার পায়তারা করছে মহালের ইজারাদার পক্ষ। এরই প্রতিবাদে এক মানববন্ধন করে উপজেলাবাসী।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সাঈদ ইবনে মোমেন ষ্ট্যালিন, ইলিয়াস তালুকদার সৌরভ, সবিতা তালুকদার, সুরুজ আলী, রফিকুল ইসলাম, আবদুল আলী প্রমুখ।