যেখানেই দুর্নীতি, সেখানেই সঙ্গে সঙ্গে অ্যাকশন: স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সচিব

 

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : যেখানেই কেউ দুর্নীতি করবে, তথ্য প্রমাণ পেলে সেখানেই সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের  স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আব্দুল মান্নান।

তিনি বলেন, ‘রিজেন্ট বা জেকেজি বা যারাই অপরাধ করেছে তাদের আমরা ছাড় দিইনি। অপরাধ যারাই করবে তা কোন হাসপাতাল, কী নাম এগুলো দেখার কোন বিষয় না, সিলগালা করে দেওয়া হবে।’

 সোমবার ১৩ জুলাই বিকেলে নারায়ণগঞ্জে ‘নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল’ পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা জানান।

এসময় সাংবাদিকদের তথ্য দিয়ে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

সচিব বলেন, ‘আমাদের লোকবলের অভাব রয়েছে। সেক্ষেত্রে মিডিয়া যদি আমাদের তথ্য দেয়, হোক সেটা প্রাইভেট ক্লিনিক, যে তারা অপকর্ম করেছে। আমরা কিন্তু কাউকে ছাড়তে চাচ্ছি না।’

তিনি বলেন, ‘আমি আগেও বলেছি, আমি একদিন, এক ঘণ্টা বা এক মিনিটও দুর্নীতির সঙ্গে থাকতে চাই না এবং যেখানেই দুর্নীতি করবে, তথ্য প্রমাণ পাবো সেখানেই সঙ্গে সঙ্গে অ্যাকশন নেওয়া হবে।’

আব্দুল মান্নান বলেন, ‘প্রতিদিনই আমরা কোন না কোন উদ্যোগ নিচ্ছি। গত ১২ জুলাইও আমরা একজন অধ্যাপককে সাময়িক বরখাস্ত করেছি। তার কারণ আপনারা জানেন।

সচিব বলেন, ‘দুর্নীতি হয়েছে। তবে দুর্নীতি দমন কমিশন কিন্তু বসে নেই। আমরাও তাদের সাহায্য করছি। যারাই অপরাধ করবে তারা অবশ্যই আইনের আওতায় আসবে এবং আসা উচিত।

এসময় তিনি নারায়ণগঞ্জে করোনা নমুনা পরীক্ষার বিষয়েও প্রশ্নের উত্তর দেন। তিনি বলেন, কোনো অনিয়ম হয়ে থাকলে সেই বিষয়ে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব তানজিয়া সালমা, নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন, সিভিল সার্জন ডা. মুহাম্মদ ইমতিয়াজ, ৩০০ শয্যা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. গৌতম রায়।