শেখ কামালের জন্মদিন সরকারিভাবে উদযাপনের সিদ্ধান্ত

নিউজ ডেস্ক:    সরকারিভাবে প্রথমবারের মতো বঙ্গবন্ধুর জেষ্ঠ্য পুত্র শেখ কামালের জন্মদিন উদযাপন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। প্রথমবারের মতো আগামী ৫ আগস্ট সরকারিভাবে দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে এক ভার্চুয়াল সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভায় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেন, বাংলাদেশের ক্রীড়া জগতের  এক উজ্জ্বল নক্ষত্র জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ কামাল। তিনি শুধু আধুনিক ফুটবলের রূপকারই নন, দেশের সকল খেলাধুলার উন্নয়নে রয়েছে তার অনবদ্য ভূমিকা। ‘আমরা এ বছর প্রথমবারের মতো যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে শহীদ শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে বিস্তৃত কর্মসূচি হাতে নিচ্ছি।তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে স্বাস্থ্য বিধি মেনে সকল কর্মসূচি পালন করা হবে।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা তার বণার্ঢ্য জীবনের একটি পূর্ণাঙ্গ ডকুমেন্টারি তৈরি করবো। যেখানে তার রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়াক্ষেত্রে তার অবদান তুলে ধরা হবে। মুক্তিযুদ্ধে তিনি যে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন সেটিও ফুটিয়ে তোলা হবে। এ লক্ষ্যে আমরা সংস্কৃতি, তথ্য ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাথে অল্প সময়ের মধ্যে একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় মিলিত হবো।

প্রতিমন্ত্রী জানান, দিবসটিকে স্মরণীয় করে রাখতে আমরা শেখ কামালের নামে ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করবো। এছাড়াও শেখ কামালের ঘনিষ্ঠজনদের অংশগ্রহণে আলোচনা সভা আয়োজন করা হবে। ভার্চুয়াল সভায় যুব ও ক্রীড়া সচিব মো. আখতার হোসেন, বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব মো. শাহেদ রেজা, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সদস্য হারুনুর রশীদ, ক্রীড়া সংগঠক তানভীর মাজহার তান্না ও বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি অঞ্জন চৌধুরী পিন্টু অংশগ্রহণ করেন।