গিনেস বুকে রেকর্ড গড়লো ভারতের বাঘ শুমারি

 

নিউজ ডেস্ক: ক্যামেরার মাধ্যমে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বন্যপ্রাণী জরিপ পরিচালনা করায় গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে জায়গা করে নিয়েছে ভারতের একটি বাঘ শুমারি। ২০১৮ সালে পরিচালিত ওই শুমারির ফলাফল ২০১৯ সালে প্রকাশ করা হয়। গিনেস রেকর্ডের স্বীকৃতিকে বড় অর্জন আখ্যা দিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভেদাকার বলেছেন, এটি আত্মনির্ভর ভারতের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

২০১৮ সালে চতুর্থ বারের মতো পরিচালিত হয় সর্ব ভারতীয় বাঘ শুমারি। এতে দেখা যায় বিশ্বের মোট বাঘ জনগোষ্ঠীর ৭৫ শতাংশই রয়েছে ভারতে। গত বছর বাঘ দিবসে সেই ফলাফল ঘোষণা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানান, ভারতে মোট বাঘের সংখ্যা দুই হাজার ৯৬৭টি।

ভারতের ওই জরিপকে স্বীকৃতি দিয়ে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ‘ ২০১৮-১৯ সালে পরিচালিত ভারতের চতুর্থ শুমারি আজকের দিন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি বিস্তৃত জরিপ- সরঞ্জাম এবং তথ্য বিশ্লেষণ উভয় দিক দিয়েই। ১৪১টি অঞ্চলের ২৬ হাজার ৮৩৮টি স্থানে ক্যামেরা ট্রাপ স্থাপন করা হয়। প্রায় এক লাখ ২১ হাজার ৩৩৭ বর্গ কিলোমিটার এলাকার ওপর এই জরিপ পরিচালনা করা হয়।’

ওই শুমারিতে মোট ৩ কোটি ৪৮ লাখ ৫৮ হাজার ৬২৩টি বন্যপ্রাণীর ছবি ধারণ করা হয়। এর মধ্যে ৭৬ হাজার ৬৫১টি ছিল বাঘ আর ৫১ হাজার ৭৭৭টি ছিল চিতাবাঘের। বাকি ছবিগুলো অন্যান্য স্থানীয় প্রাণীর। এসব ছবি সফটওয়্যারে পর্যালোচনার পর মোট ২ হাজার ৪৬১টি বাঘ শনাক্ত করা হয়।