অনলাইন ক্লাস পছন্দ নয় বেশিরভাগ জার্মান শিক্ষার্থীর

নিউজ ডেস্ক:   সারাবিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে এক কোটি ২৬ লাখ ৩৯ হাজার পাঁচশ ৮৩ জন এবং মারা গেছে পাঁচ লাখ ৬৩ হাজার একশ ৩৭ জন। কিন্তু করোনাভাইরাসের কোনো টিকা এখন পর্যন্ত উদ্ভাবন করতে পারেননি গবেষকরা। সে কারণে বিশ্বের সবাইকে মানুষে মানুষে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে, মাস্ক ব্যবহার করতে এবং বাড়িতে অবস্থানের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

করোনা সঙ্কটের কারণে শিক্ষার্থীরা ঘরে বসে পড়াশোনা করছে। তবে সেই সুযোগগুলো অসঙ্গতিপূর্ণ বলে মনে করছে তরুণরা৷ ৩৪ শতাংশ জার্মান শিক্ষার্থী বাড়ি থেকে স্কুলের পড়াশোনার ব্যাপারে একেবারেই অসন্তুষ্ট। পোষ্টব্যাঙ্ক পরিচালিত এক জরিপে এসব তথ্য উঠে এসেছে৷ সমীক্ষাটিতে অংশ নিয়েছে ১৬ থেকে ১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীরা ৷

জরিপে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের ৪৬ শতাংশ জানিয়েছে, তারা সন্তুষ্ট আর মাত্র ১৩ শতাংশ জানিয়েছে হোমস্কুলিং- শিক্ষার দ্রুত বিকল্প ব্যবস্থায় তারা খুবই খুশি৷ অন্যদিকে সাত ভাগ শিক্ষার্থী স্কুলের অনলাইন শিক্ষা প্রোগ্রামে অংশই নেয়নি৷

এ বছরের এপ্রিল এবং মে মাসে প্রায় এক হাজার তরুণ-তরুণীকে নিয়ে করা এই সমীক্ষার ফলাফলে স্থানভেদে পার্থক্য দেখা গেছে৷ যেমন, জার্মানির পূর্বাঞ্চলে ৫১ শতাংশ ছেলে-মেয়ে ডিজিটাল শিক্ষাব্যবস্থায় সন্তুষ্ট, অথচ দক্ষিণাঞ্চলে সন্তুষ্ট ৬৪ ভাগ, পশ্চিমাঞ্চলে ৫৮ শতাংশ এবং উত্তরাঞ্চলে ৫৯ শতাংশ সন্তুষ্ট৷

এ সম্পর্কে পোস্টব্যাঙ্কের ডিজিটাল এক্সপার্ট টোমাস ব্রশ বলেন,  বেশিরভাগ শিক্ষার্থী তাদের স্কুলের অনলাইন শিক্ষার বিষয়বস্তু সম্পর্কে ইতিবাচক মনোভাব দেখালেও, এখনো আরো উন্নয়নের প্রয়োজন রয়েছে৷ শিশু এবং তরুণদের জন্য সমসাময়িক আধুনিক ডিজিটাল শিক্ষার সুযোগ করে দেওয়া অপরিহার্য।