ভারতীয় মাস্টারমাইন্ড ক্রিকেট জুয়াড়ি আটক

নিউজ ডেস্ক:    ম্যাচ ফিক্সিংয়ের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে রবিন্দর দান্দিওয়াল নামক এক ভারতীয়কে গ্রেফতার করেছে পাঞ্জাব পুলিশ। সম্প্রতি পাঞ্জাবে একটি ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজন করে সেই ম্যাচকে শ্রীলঙ্কার টুর্নামেন্ট বলে প্রচার করছিলেন তিনি। সোমবার আটক করা হয় এই জুয়াড়িকে।

মিথ্যে টুর্নামেন্ট আয়োজন এবং ম্যাচ ফিক্সিং সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করতে মঙ্গলবার তাকে জেরা করে ভারতীয় ক্রিকেটের দুর্নীতি বিরোধী শাখা। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, পাঞ্জাবের কোনও এক স্থানে ২৯ জুন থেকে একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট চালু হয়েছিল। যা শেষ হওয়ার কথা ছিল ৫ জুলাই।

ভারতীয় বোর্ডের (বিসিসিআই) চোখে ধুলো দিতে ওই টুর্নামেন্ট শ্রীলঙ্কায় হচ্ছে বলে জানানো হয় অভিযোগে। এছাড়া ইউটিউবের সহ ফ্যানকোড অ্যাপ, ডায়ামন্ড, স্কাই, লোটাস, টেনবেট, স্পিন এবং পাঞ্জাব এক্সচেঞ্জের মতো সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ম্যাচগুলি দেখানো হচ্ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

খারার পুলিশের উপ-তত্ত্বাবধায়ক পাল সিং পিটিআইকে বলেন, ‘সোমবার দান্দিওয়ালকে গ্রেফতার করেছি আমরা। সম্প্রতি শেষ হওয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িতে থাকার অভিযোগে তাকে আটক করা হয়েছে। এই ঘটনার জের ধরে আমরা এর আগেও দুজনকে গ্রেফতার করেছি।’

এই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তিন দিন আগে বুকি রাজেশ গর্গ এবং পঙ্কজ আরোরা নামে দুইজনকে গ্রেফতার করেছিল মোহালি পুলিশ। তাদের জেরা করেই জানা যায় যে এর পেছনে মাস্টার মাইন্ড কুখ্যাত রবিন্দর দান্দিওয়াল জড়িত।

সোমবার তাকেও গোপন আস্তানা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তিন অভিযুক্তকেই পাঁচ দিনের জন্য পুলিশি হেফাজতে পাঠিয়েছে আদালত। ঘটনায় পাঞ্জাবের বেশকিছু রঞ্জি ক্রিকেটারের জড়িত থাকারও প্রমাণ পেয়েছে তদন্তকারীরা।

দান্দিওয়াল অতীতেও অনেক ফিক্সিং কাণ্ডে জড়িত ছিলেন বলে পুলিশ অভিযোগ করেছে। শুধু ক্রিকেটেই নয়, পাঞ্জাবের মোহালির এই জুয়াড়ির ফিক্সিংয়ের গণ্ডি ছিল টেনিস পর্যন্ত। অভিযোগ আছে, শীর্ষ পর্যায়ে খেলেন কিন্তু কিছুটা পেছনের সারিতে অবস্থান এমন টেনিস খেলোয়াড়দের টাকার বিনিময়ে ম্যাচ ছেড়ে দিতে প্ররোচিত করতেন এই জুয়াড়ি।

পুলিশের ধারণা, টেনিস ছাড়াও ক্রিকেটের উচ্চ পর্যায়ের ম্যাচেও দান্দিওয়ালের ফিক্সিং সম্পৃক্ততা রয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজেকে ভারতীয় ক্রিকেট কাউন্সিলের জেনারেল সেক্রেটারি, ক্রিকেট প্রিমিয়ার লিগের চেয়ারম্যান বলে পরিচয় দিতেন তিনি।

এর আগে নেপালেও এমন কান্ড ঘটিয়েছিলেন দান্দিওয়াল। ফিক্সিংয়ের জন্য সেখানে একটি টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছিলেন তিনি। পুলিশকে সাহায্য করতে বিসিসিআইয়ের দুর্নীতি দমন বিভাগের একটি দল দিল্লি থেকে পাঞ্জাবের সেই টুর্নামেন্টের ভেন্যু পরিদর্শন করবে।