স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেকের পদত্যাগ দাবি: বিএনপি

নিউজ ডেস্ক:    বাজেট অধিবেশনে অংশ নিয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেকের সমালোচনা করে পদত্যাগ দাবি করেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের বিএনপির সংসদ সদস্য হারুন অর রশীদ।

দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি তুলে ধরে সংসদে থাকা প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে হারুন-অর-রশীদ বলেন, ‘সরকারের লোকজন, বিএমএ বলছে, করোনায় মৃত্যুর দায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের। এই দুঃসময়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী কি কোনো কোভিড হাসপাতাল ভিজিট করেছেন? ১০ দিন ধরে ফোন করে ও বার্তা দিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের সাড়া মিলছে না। ব্যর্থতার জন্য স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে সরিয়ে দেন। কমিটমেন্ট আছে, এমন ব্যক্তিদের দায়িত্ব দেন।’

মঙ্গলবার বাজেট অধিবেশনে তাকে ১২ মিনিট আলোচনার সুযোগ দেয়া হলে সংসদে এ সব কথা বলেন হারুন-অর-রশীদ।

তিনি অভিযোগ করেন, ‘সমাজে ঘুণ ধরে গেছে। চাঁদাবাজি, শেয়ার কেলেঙ্কারিসহ খারাপ ব্যক্তিরা দেশ নিয়ন্ত্রণ করছে।’ কারও নাম উল্লেখ না করে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলছেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স। এই সংসদে এমন ব্যক্তি এসেছেন, যিনি মাদক পাচারের শীর্ষে। তিনি কীভাবে সংসদে এলেন? তার স্ত্রী কীভাবে সংসদে এলেন? সরকারের আশ্রয়-প্রশ্রয় না থাকলে সংসদে আসতে পারতেন না।’

এ দিন বাজেট অধিবেশনে অংশ নিয়ে প্রথমবারের মতো জাতীয় সংসদ থেকে ওয়াকআউট করেছেন বিএনপির এই সংসদ সদস্য। তবে ওয়াকআউটের আগেই তিনি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সমালোচনা করে তার পদত্যাগ দাবি করেন।