রিয়া চক্রবর্তীকেই থানায় ডেকে পাঠানো হলো

নিউজ ডেস্ক::    সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনাটি আত্মহত্যা না হত্যা- এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজছে মুম্বাই পুলিশ। দৃশ্যত এটি আত্মহত্যা হলেও এর পেছনে বিশেষ কোন কারণ ছিল বলে দাবী সুশান্ত ভক্তদের। সেই দাবীর সত্যতা বের করার চেষ্টা করছে পুলিশ।

অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার পরদিন থেকে ঘটনা ঘিরে জটিলতা বাড়ছে। এই আত্মহত্যার পেছনে প্রেমঘটিত বিষয় রয়েছে কিনা সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাই প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর দিকেই নজর দিচ্ছে পুলিশ। প্রথমে রিয়াকেই থানায় ডেকে পাঠানো হয়। তদন্তের স্বার্থে রিয়ার বয়ান খুব জরুরি বলে মন্তব্য করেছে পুলিশ।

মুম্বাই পুলিশ বৃহস্পতিবার রিয়া চক্রবর্তীকে ডেকে পাঠায় তার বক্তব্য রেকর্ড করার জন্য। এদিন সকালে রিয়া সাদা পোশাক, অবিন্যস্ত চুল, মুখে মাস্ক পরে থানায় হাজির হন। ভারতীয় গণমাধ্যমের বরাতে জানা গেছে থানায় রিয়াকে দীর্ঘ সময় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এর আগে সুশান্তের ঘনিষ্ঠ বন্ধু তথা পরিচালক মুকেশ ছাবড়াকে ডেকে পাঠিয়েছিল পুলিশ। প্রায় সাত ঘণ্টা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মুকেশ পুলিশকে জানান, সুশান্ত অন্তর্মুখী স্বভাবের ছিলেন। তবে প্রযোজনা সংস্থাগুলোর সঙ্গে তার কোনো ঝামেলা চলছে কিনা তা সুশান্ত তাকে জানাননি বলে দাবি করেছেন মুকেশ।

এদিকে মুম্বাই পুলিশ সুশান্তের বাসা থেকে পাঁচটি ডায়েরি উদ্ধার করেছে। এসব ডায়েরি ঘটনার জট খুলতে অনেকটা সাহায্য করবে বলে মনে করছে মুম্বাই পুলিশ।

এই ঘটনায় মুম্বাই পুলিশ ইতিমধ্যে ১০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। সুশান্তের মৃত্যুর আগে ১০ দিন তার সঙ্গে যাদের দেখা ও কথাবার্তা হয়েছে তাদের শিগগিরই জেরার মুখোমুখি দাঁড় করানো হবে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।