উবারের ৩৭০০ কর্মী ছাঁটাই!

একাধিক জুম ভিডিও কলে প্রতিষ্ঠানের ৩৭০০ কর্মী ছাঁটাই করেছে উবার, যা প্রতিষ্ঠানের মোট কর্মীর প্রায় ১৪ শতাংশ। কর্মীদের ছাঁটাইয়ের জন্য প্রতিটি জুম কলের স্থায়িত্ব ছিলো তিন মিনিটেরও কম। এতে ছাঁটাই হওয়া কর্মীদের জন্য একটি সাধারণ বার্তা ছিলো “উবারে আপনার আজই শেষ দিন।” কোভিড-১৯ মহামারীতে আয় কমে যাওয়ায় প্রতিষ্ঠানের খরচ কমানোর লক্ষ্যে গত সপ্তাহেই কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছিল রাইড হেইলিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানটি। এবারে জুম কলে তা বাস্তবায়ন করলো উবার– খবর আইএএনএস-এর। জুম কলের একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, গ্রাহক সমর্থন বিভাগের ছাঁটাই হওয়া কর্মীদেরকে প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক বলছেন, “উবারে আপনার আজই শেষ দিন।” ছাঁটাইয়ের বিষয়ে কর্মীদেরকে উবারের ফিনিক্স সেন্টার অফ এক্সসিলেন্স প্রধান রাফিন শাভেলিউ বলেন, “কোভিড-১৯ এর কারণে এখন রাইড ব্যবসা অর্ধেকেরও কম। এটি কঠিন এবং দূর্ভাগ্যের বিষয় যে, সম্মুখভাগের অনেক গ্রাহক সমর্থনের কর্মীদের জন্য যথেষ্ট কাজ নেই।” গত সপ্তাহের বুধবার সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে দেওয়া এক নথিতে ৩৭০০ কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দেয় উবার।

গ্রাহক সেবা এবং নিয়োগ, এই দুই বিভাগ থেকে এই কর্মী ছাঁটাই করার কথা জানিয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। উবারের সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানের কর্মী সংখ্যা ২৬ হাজার নয়শ’। সেই হিসাবে ছাঁটাই হওয়া কর্মীর সংখ্যা ১৪ শতাংশ। কর্মীদেরকে উবার প্রধান দারা খোসরোশাহি বলেন, “আমাদের রাইড লক্ষ্যণীয় মাত্রায় কমে যাওয়ায় আমাদের যোগাযোগ কার্যক্রমের চাহিদা কমে গেছে, পাশাপাশি কমেছে ব্যক্তি পর্যায়ে সমর্থন। আর নিয়োগ বন্ধ রাখায় নিয়োগ বিভাগের কর্মীদের হাতে যথেষ্ট কাজ নেই।” বছরের বাকী সময় নিজের মূল বেতন কমিয়ে নিতেও উবারের বোর্ড সদস্যদের সঙ্গে চুক্তিতে এসেছেন দারা খোসরোশাহি। ২০১৯ সালে তার মূল বেতন ছিলো ১০ লাখ মার্কিন ডলার। বর্তমানে ছাঁটাইয়ের কথা মাথায় রাখলেও সামনে বিনিয়োগের দিকেও তাকিয়ে আছে রাইড শেয়ারিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানটি৷ বৈদ্যুতিক স্কুটার প্রতিষ্ঠান লাইম-এ ১৭ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করতে আলোচনা চালাচ্ছে তারা। ইতোমধ্যেই লাইম-এ উবারের কিছু শেয়ার রয়েছে। আর জাম্প নামে বৈদ্যুতিক স্কুটার ও বাইক এনেছে উবার নিজেও।

চিফ রিপোর্টার, সাইফ শোভন, ঢাকানিউজ২৪.কম