উন্নত চিকিৎসাসহ সকল পদক্ষেপ গ্রহণের আশ্বাস: প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক:   করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিমের মস্তিষ্কে সফল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। তার শারীরিক অবস্থার খোঁজ-খবর নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বর্ষীয়ান এই আওয়ামী লীগ নেতাকে আরও দুই দিন অচেতন অবস্থায় হাসপাতালের আইসিইউতে থাকতে হবে। এমন পরিস্থিতিতে প্রয়োজনে তার উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। মোহাম্মদ নাসিমের পরিবারের পক্ষ থেকে তার আশু সুস্থতা চেয়ে দেশবাসীর দোয়া কামনা করা হয়েছে।

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর গত সোমবার থেকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন মোহাম্মদ নাসিম। শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় শুক্রবার তাকে আইসিইউ থেকে কেবিনে স্থানান্তরের কথা ছিল। শুক্রবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে ব্রেইন স্ট্রোক করায় অবস্থার গুরুতর অবনতি ঘটে।

তাকে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) স্থানান্তরের উদ্যোগ নেওয়া হয়। সিএমএইচের অ্যাম্বুলেন্স এলেও শারীরিক অবস্থা খারাপ থাকায় তাকে নেওয়া যায়নি। সকালে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে মোহাম্মদ নাসিমের মস্তিস্কের অস্ত্রোপচার শুরু হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. রাজিউল হকের নেতৃত্বে বেলা ১১টা পর্যন্ত অস্ত্রোপচার চলে।

বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও পরিচালক ডা. আল ইমরান চৌধুরী জানিয়েছেন, মোহাম্মদ নাসিমের অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে। আগামী দুই দিন তাকে অচেতন অবস্থায় আইসিইউতে রাখা হবে। এরপর অবস্থার উন্নতি সাপেক্ষে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সাবেক এই স্বাস্থ্যমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার অবনতির কথা শুনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকাল থেকে কয়েক দফায় তার ছেলে ও সাবেক এমপি তানভীর শাকিল জয়ের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন। অস্ত্রোপচার শেষে অস্ত্রোপচারকারী চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. রাজিউল হকের কাছ থেকেও টেলিফোনে নাসিমের সর্বশেষ শারীরিক অবস্থার বিষয়ে খোঁজ-খবর নেন প্রধানমন্ত্রী। উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করতে সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণের আশ্বাসও দেন শেখ হাসিনা।