করোনা দুর্যোগেও নগরবাসীকে ডেঙ্গুমুক্ত রাখার প্রচেষ্টা থাকবে : মসিক মেয়র টিটু

মো. নজরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের (মসিক) মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু বলেছেন করোনা দুর্যোগেও নগরবাসীকে ডেঙ্গুমুক্ত রাখার চেষ্টা থাকবে। নাগরিকদের নিরাপত্তার বিষয়টি সবার আগে বিবেচনা করতে হবে। সেজন্য ডেঙ্গু থেকৈ নগরবাসীকে নিরাপদ রাখতে মসিকের সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা থাকবে।

বুধবার ০৩রা জুন দুপুরে মসিকের আয়োজনে শহীদ শাহাবুদ্দিন মিলনায়তনে ডেঙ্গু প্রতিরোধে মশক নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির টেকনিক্যাল কমিটির সভায় সভাপতিত্বের বক্তব্যে এসব কথা বলেন। সভায় ডেঙ্গু প্রতিরোধে সিটি কর্পোরেশনের আগামী দিনের কর্মসূচি নির্ধারণ করা হয়।

সভায় মসিক মেয়র বলেন, এ সময় মেয়র ডেঙ্গু প্রতিরোধে ব্যক্তি সচেতনতার প্রতি বিশেষভাবে গুরুত্বারোপ করেন এবং গতবছর ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে গৃহিত নানা কর্মসূচিকে তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ‘গত বছর আমরা ময়মনসিংহ শহরকে ডেঙ্গু থেকে নিরাপদ রাখতে সক্ষম হয়েছিল ইনশাআল্লাহ, এবছরও আমাদের সেই ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হবে। ’

টেকনিক্যাল কমিটির অন্যতম সদস্য বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কীটতত্ত্ব বিভাগের প্রফেসর ড. মো: মাহির উদ্দিন ডেঙ্গু প্রতিরোধে এডিস মশার নিধনে কার্যকর বিভিন্ন পদ্ধতির উপর আলোকপাত করেন এবং মসিকের ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রন কার্যক্রমকে আরো সফল করতে নানাবিধ পরামর্শ প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, ইতোপূর্বে মশক নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির জন্য মসিক মেয়রকে আহবায়ক এবং প্রাণ স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে সদস্য সচিব করে দুইজন ওয়ার্ড কাউন্সিলর, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কীটতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক, সাবেক সিভিল সার্জন, পরিবেশ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, মসিক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী, ডেপুটি সিভিল সার্জন, মসিক প্রধানবর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা, খাদ্য ও স্যানিটেশন কর্মকর্তা, সিভিল সার্জন অফিসের এন্টোটেকনিশিয়ান, বিডিক্লিনের বিভাগীয় সমন্বয়কসহ মোট ১৩ সদস্যের টেকনিক্যাল কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সকলেই নিজ নিজ অবস্থান থেকে পরামর্শ প্রদান করেন। এছাড়াও এ সভায় সিটি কর্পোরেশনের ম্যাজিস্ট্রেট মো. রাজিব-উল-আহসান, জনসংযোগ কর্মকর্তা শেখ মহাবুল হোসেন রাজীব প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ডেঙ্গু মশার নিয়ন্ত্রন কার্যক্রমকে আরো সফল করতে পরবর্তীতে টেকনিক্যাল কমিটির সভার আবারো অনুষ্ঠিত হবে।

জনসংযোগ কর্মকর্তা শেখ মহাবুল হোসেন রাজীব জানান, বিশ্ব মহামারী করোনা কালে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব আমাদের জীবনযাত্রাকে আরো বিপর্যস্ত করে তুলতে পারে, এই সংকট কাটিয়ে ওঠার লক্ষ্যে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব রোধে টেকনিক্যাল  কমিটির বিশেষজ্ঞগণ নাগরিক সচেতনতা, সুষ্ঠু পরিকল্পনা এবং বাস্তবায়নে গুরুত্ব আরোপ করেন। ডেঙ্গু থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে, বাড়ির ভিতরে ফুলের টব ,ফুলদানি ,পানির পাত্র ,এসির ফিল্টার ,বাড়ির ছাদের উপর স্বচ্ছ পানি ,জানালার কার্নিশে জমে থাকা স্বচ্ছ পানি, পরিত্যক্ত টায়ার, খোলা টিউব, বোতল, গ্লাস, পানি ধারণ করতে সক্ষম যে কোন ধরনের পাত্র, ডাবের খোসা, চিপসের প্যাকেট, যে কোন ধরণের পলিথিনের প্যাকেট এবং ব্যাগ চকলেটের খোসা, কাঁচাবাজারে সবজি ধোয়ার পত্র সমূহ , নির্মাণাধীন ভবনের ছাদে জমিয়ে রাখা পানি ,অপরিচ্ছন্ন আঙিনা এবং বিভিন্ন ধরনের ঝোপজঙ্গল ইত্যাদি এডিস মশার প্রজনন কেন্দ্র সুতরাং এডিস মশা থেকে পরিত্রান পেতে হলে সিটি করপোরেশনের উদ্যোগের পাশাপাশি সকল সম্মানিত নাগরিকদের সহযোগিতা প্রয়োজন, সকলের প্রতি উদাত্ত আহবান প্রত্যেকের বাড়ি/ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এবং প্রাঙ্গণ সমূহ নিজ দায়িত্বে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখি ডেঙ্গু মুক্ত পরিবেশ গড়ে তুলি। মহান আল্লাহ পাক আমাদের সকল প্রকার বিপদ থেকে হেফাজত করুন।