সাধারণ মানুষের স্বার্থে বর্ধিত বাসভাড়া বাতিল করুন: রোড সেফটি ফাউন্ডেশন

নিউজ ডেস্ক:    গণপরিবহনের ৬০ শতাংশ বর্ধিত বাসভাড়া বাতিল করে সাধারণ মানুষের স্বার্থে পুর্বের ভাড়ায় গণপরিবহন চালানোর দাবি রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের।

রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সাইদুর রহমান এক বিবৃতিতে বলেন, সরকার গণপরিবহন মালিক এবং কিছু শ্রমিক নেতাদের স্বার্থ রক্ষায় অযৌক্তিভাবে বাসভাড়া ৬০ শতাংশ বৃদ্ধি করেছে। এই বর্ধিত ভাড়া করোনা মহামারীতে আর্থিকভাবে বিপর্যস্ত নিম্ন ও মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষের জীবনকে দুর্বিসহ করে তুলবে। এটি চরমতম অন্যায় ও অমানবিক।

তিনি বলেন, দেশে গণপরিবহন যাত্রীর পরিমান, মালিক-শ্রমিকদের মানসিকতা, রাজনৈতিক চাঁদাবাজি, নিয়ন্ত্রণ সংস্থার দুর্নীতি ও দুর্বলতার কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত আকারে গণপরিবহন চালানোর সিদ্ধান্ত অবাস্তব এবং এ বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দেয়া অনেকটা প্রতারণার সামিল। যার প্রমাণ আজকেই বিভিন্ন সড়কে দেখা গেছে। যে অল্প কয়েকটি বাস-মিনিবাস সড়কে চলেছে তার অধিকাংশই স্বাস্থ্যবিধি মানেনি। সকল সীট পূর্ণ করে এমনকি দাঁড়ানো যাত্রীও বহন করেছে। অথচ বর্ধিত যাত্রীভাড়া ঠিক আদায় করা হয়েছে। এটিই বাস্তবতা। আগামীতেও এর ব্যতিক্রম হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

এই অবস্থায় বর্ধিত বাসভাড়া প্রত্যাহার করে সাধারণ মানুষের স্বার্থে পূর্বের ভাড়ায় গণপরিবহন চালানোর ব্যবস্থা করতে তিনি সরকারের প্রতি আহবান জানান।