আইসিসির কাছে পরিষ্কার নির্দেশনা চাইলেন সাকিব

নিউজ ডেস্ক:    করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বৈশ্বিক খেলাধুলায় স্থবিরতা নেমে এসেছে। এরমধ্যে সতর্কতা অবলম্বন করে মাঠে ফুটবল ফিরিয়েছে জার্মানি। করোনা পরবর্তী ক্রিকেট শুরুর কথা ভাবছে ইংল্যান্ড, শ্রীলংকার মতো দল।

করোনা পরবর্তী ক্রিকেট কেমন হবে, এ নিয়ে আইসিসি তাই দিয়েছে নির্দেশনা। বল থুতু দিয়ে ঘষা যাবে না। চার ধাপে করতে হবে অনুশীলন। উইকেট পেলে উদযাপন করা যাবে না। আম্পায়ারদের নিতে হবে গ্লাভস। তাদের কাছে তোয়ালে, ক্যাপ, জার্সি দেওয়া যাবে না ইত্যাদি।

কিন্তু আইসিসির ওই নির্দেশনার মধ্যেই প্রশ্ন তুলেছেন ফ্যাফ ডু প্লেসি। তার প্রশ্ন, ফিল্ডিংয়ের সময় হাতে কি থুতু দেওয়া যাবে? স্লিপ ফিল্ডিংয়ের সময় ওটা তার অভ্যাস। এবার প্রশ্ন তুলে দিলেন সাকিব। তার মতে, আরও সুনির্দিষ্ট হওয়া উচিত আইসিসির নির্দেশনা।

সাকিব একটি সংবাদ মাধ্যমের কাছে আলাপের সময় প্রশ্ন তুলে বলেছেন, তাহলে কি ব্যাটিংয়ের সময় দুই প্রান্তের ব্যাটসম্যান কাছে গিয়ে আলাপ করতে পারবে না। উইকেটরক্ষককে দূরে দাঁড়াতে হবে?

সাকিব বলেন, ‘এখন আমরা শুনছি যে, করোনা একে অপরের থেকে তিন কিংবা ছয় নয় ১২ ফিট পর্যন্ত ছড়াতে পারে। তার মানে কি, দুই ব্যাটসম্যান পরামর্শ করার জন্য কাছে আসতে পারবেন না? দুই প্রান্তেই থাকতে হবে তাদের। উইকেটরক্ষক কি স্পিনের সময়ও দুরে দাঁড়াবেন? কাছাকাছি ফিল্ডিং (স্লিপ) করার সময় কী হবে। আইসিসির এই বিষয়গুলোও পরিষ্কার করা উচিত।’

তিনি মনে করেন, পরিস্থিতি খেলার মতো অবস্থায় না ফেরা পর্যন্ত আইসিসি হয়তো ক্রিকেট ফেরানোর সিদ্ধান্ত নেবে না। কারণ সবকিছুর আগে জীবন। নিজের ক্রিকেটে ফেরা নিয়ে সাকিব জানান, দুই দিক থেকে দিন গুনছেন তিনি। কবে করোনা শেষ হবে আর কবে তার নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে। এখন যদিও খেলা নেই, তবুও সাকিবের মাথায় ঘুরছে কাল যদি খেলা ফেরে তিনি তো ফেলতে পারবেন না।