ডিআইজি হাবিবুর রহমানের তত্ত্বাবধানে বেদে সম্প্রদয়ের মধ্যে ঈদ উপহার বিতরণ করেছেন অপূর্ব

ওবায়দুর রহমান সোহান, ঢাবি প্রতিনিধি

বেদে সম্প্রদায়, যারা নির্দিষ্ট জেলায় জন্মগ্রহণ করলেও দেশের এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় ঘুরে বেড়িয়ে সাপের খেলা, শিঙ্গা টানা, দাঁতে পোকার ঔষধ ইত্যাদির মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। বিশ্বব্যাপী অভিশপ্ত করোনার ফলে পৃথিবীর যে সংকটময় অবস্থা তাতে এই বেদে সম্প্রদায়ের অবস্থা খুবই শোচনীয়। অতিদ্রুত বসবাসের জায়গা পরিবর্তনের ফলে তারা বঞ্চিত হচ্ছে সরকারি এবং বিত্তবানদের সহায়তা থেকে।

বেদে সম্প্রদায়ের এমন সংকটের সময়ে ঢাকা রেঞ্জের পুলিশের ডিআইজি হাবিবুর রহমানের তত্ত্বাবধানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী অপূর্ব চক্রবর্তীর পক্ষ থেকে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় ১৬ টি বেদে পরিবারের মাঝে ঈদসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

আজ শনিবার (২৩ মে) উপজেলার তারাশী গ্রামে অস্থায়ী বেদে পল্লীতে অপূর্ব চক্রবর্তীর তত্ত্বাবধানে এই ঈদ উপহার বিতরণ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেন। উপহার সামগ্রীর প্যাকেটের মধ্যে ছিলো অাটা, পেয়াজ, সয়াবিন তেল, আলু, সেমাই, চিনি, দুধ ,বুটের ডাল ইত্যাদি।

উপহার বিতরণকালে কোটালীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ লুৎফর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বেদে জনগোষ্ঠীর মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করেন।

এ সময়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সূর্যসেন হল ছাত্রলীগ কর্মী হাসান মতিউর রহমান, কোটালীপাড়া কলেজের এজিএস কর্মী অপূর্ব রায় প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

এই কার্যক্রম প্রসঙ্গে এর অপূর্ব চক্রবর্তী বলেন, অাসলে বর্তমান করোনা ভাইরাসের সংকটকালে অামরা অনেক ভাবে কাজ করছি এবং নিজেদের সাধ্যের মধ্যে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করছি। কিন্তু এই বেদে সম্প্রদায় বিভিন্ন কারণে অবহেলিত হয়ে অাসছে। তারা এক জায়গায় থেকে অন্য জায়গায় অবস্থান করায় তেমন সহযোগিতা পায় না। এরাও মানুষ। অর্থাৎ, অামাদের উচিত যারা খুব অভাবে রয়েছে এবং যাদের সহযোগিতার দরকার তাদের পাশে দাঁড়ায়ে সীমিত পরিসরেও ঈদের আনন্দকে ভাগাভাগি করে নেওয়া।