করোনার কাছে হেরে গেলেন জাপানের সুমো কুস্তিগীর

নিউজ ডেস্ক:    করোনাভাইরাসে বয়স্ক এবং দুর্বলরা বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন এবং প্রাণ হারাচ্ছেন বলেই ধারণা জন্মেছে মানুষের। বিজ্ঞানীরাও বলেছেন তেমনই কথা। কিন্তু করোনা এরই মধ্যে বিশ্বের অসংখ্য তাজা প্রাণ কেড়ে নিয়ে সেটা ভুল প্রমাণ করেছে। এই প্রাণঘাতী ভাইরাস এবার হারিয়ে দিল জাপানি পালোয়ানকে।

জাপানের সুমো কুস্তিগীর দীর্ঘদেহী শোবুশি করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বুধবার। তার বয়স হয়েছিল মাত্র ২৮ বছর। তাকাদাগাওয়ার কুস্তিগীর ছিলেন তিনি। এছাড়া জাপানের একাধিক কুস্তিগীর করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বহু কোচও করোনার সঙ্গে হাসপাতালে লড়ছেন।

জাপানের অতি প্রাচীন ও জনপ্রিয় খেলা সুমো রেসলিং। জাপান সুমো অ্যাসোসিয়েশন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এপ্রিলের ৪ তারিখ থেকে জ্বরে আক্রান্ত হন শোবুশি। এর পর তিনি স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন। কিন্তু বারবার লাইন ব্যস্ত থাকায় তিনি যোগাযোগ করে উঠতে পারেননি।

এরপর ব্যক্তিগত উদ্যোগে তিনি বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হতে যান। শেষমেশ ৮ এপ্রিল টোকিও জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। প্রথমে তার করোনা টেস্ট নেগেটিভ আসে। দু’দিন পরে ফের টেস্ট করালে পজিটিভ হয়। তার পরই চিকিৎসা শুরু হয় তার।