আমি সেই কোভিড উনিশ

শুভ্রদেব হালদার: 

চারিদিকে হাহাকার,
কি এক চমৎকার?
সবকিছু হচ্ছে ক্ষুন্ন,
মায়ের বুক হচ্ছে শুন্য!
যুদ্ধ!যুদ্ধ!যুদ্ধ! অস্ত্রহীন যুদ্ধ!
চারিদিকে সব কিছু অবরুদ্ধ!
ডাক্তার,নার্স, প্রশাসনিক কর্মকর্তারা জীবন রেখেছে বাজি-
তবুও মৃত্যু সংখ্যা, আক্রান্ত সংখ্যা বাড়াচ্ছে এই পাজি!
এ কেমন বিশ্বযুদ্ধ? অস্ত্র নেই বোমা নেই, নেই দাবানল-
শুধু মৃত্যুকোলে ঢোলে পড়ছে অনিরুদ্ধ সকল;
পোকা গুলো গিলে ফেলছে বিশ্বকে,
অর্থনীতিতে নেমেছে ধস- ডেকেছে দূর্ভিক্ষকে;
তবে এই কি অস্ত্রহীন তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ!
ঈশ্বর, প্রভু, গড! কোথায় তুমি? -শুনতে পাওনা শত কোটি মানুষের চিৎকার –
দেখেছো কিভাবে ঘেরে রেখেছে –
পারছে না কেউ করতে মোলাকাত,
দূরত্ব রেখে পথ চলতে হচ্ছে দিনরাত!
ঘরবন্দী, কারাজীবন – এ হলো করোনার সংলাপ!
শেষ করে দিচ্ছে মানবশক্তি, কেড়ে নিচ্ছে শত মায়ের কোল-
তবে এটা কি কোন বিষ-
– হা হা আমি সেই “কোভিড উনিশ”!
ক্ষুধার জালায় যে চিৎকার,
কে করবে এই মানবশুন্যের সৎকার!
জীবন দিচ্ছে প্রতি দিন হাজার হাজার মানুষ-
নীল আকাশের বুকে উড়ে যাচ্ছে সাদা শুন্যের ফানুস!

লেখক / কবি : পপুলার মেডিকেল কলেজ, ঢাকা এর ২য় বর্ষে র ছাত্র ।