সরকারকে জীবনের পাশাপাশি জীবিকাও দেখতে হচ্ছে  : ওবায়দুল কাদের

নিউজ ডেস্ক: সরকারি ছুটির মধ্যে কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান চালু রাখার করার কারণ ব্যাখ্যা করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘সরকারকে আজ জনগণের জীবনের পাশাপাশি জীবিকাও দেখতে হচ্ছে। মানুষকে বাঁচানোর পাশাপাশি অর্থনৈতিক চাকা কেউ সচল করে রাখতে হবে। তাই সরকার কিছু কিছু ক্ষেত্রে সাধারণ ছুটি শিথিল করা হয়েছে।’

মঙ্গলবার (৫ মে) সংসদ ভবনের সরকারি বাসভবন থেকে এক ভিডিও বার্তায় একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যে ঘোষণা দিয়েছেন ঈদের আগে হতদরিদ্র কর্মহীন মানুষের আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। ৬৪ জেলায় শিশুখাদ্যের জন্য ৬৬ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে এছাড়া এক লাখ ২৪ হাজার মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে ৩১টি প্রতিষ্ঠানের করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত ১৯ লাখ পিপিই সংগ্রহ করা হয়েছে। বিতরণ করা হয়েছে ১৫ লাখের মতো। হাতে প্রায় চার লাখ আছে। পিপিই সংগ্রহ প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। সারাদেশের জেলা-উপজেলায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইনের জন্য ৬০১টি প্রতিষ্ঠান প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক সেবা দেওয়া যাবে ৩০ হাজার ৬৩৫ জনকে।’

তিনি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শেখ হাসিনা সরকারের সমালোচনা করছেন কিন্তু আন্তর্জাতিকভাবে ফোরর্স ও দা ইকোনোমিস্টের মত প্রেস্টিজিয়াস সাময়িকী তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের প্রশংসা করেছে। শেখ হাসিনার সাফল্যের বিষয়টি দেশে-বিদেশে সমাদৃত হয়েছে। করোনা সংকট মোকাবেলায় তার নেতৃত্ব ও গৃহীত ব্যবস্থার প্রশংসা সর্বত্রই রয়েছে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শেখ হাসিনা সরকারের সমালোচনা করছেন। কিন্তু আন্তর্জাতিকভাবে ফোর্বস ও দা ইকোনোমিস্টের মতো প্রেস্টিজিয়াস সাময়িকী তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের প্রশংসা করেছে। শেখ হাসিনার সাফল্যের বিষয়টি দেশে-বিদেশে সমাদৃত হয়েছে। করোনা সংকট মোকাবেলায় তার নেতৃত্ব ও গৃহীত ব্যবস্থার প্রশংসা সর্বত্রই রয়েছে।’

তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর এখন প্রয়োজন জনগণের পাশে দাঁড়ানো, নিজেরা সচেতন হওয়া, অন্যকে সচেতন করা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা।